ব্রেকিং নিউজ

কুর্দিস্তানের গণভোটের বিরুদ্ধে হুঁসিয়ারী:‘দ্বিতীয় ইসরাইল রাষ্ট্রের অস্তিত্ব মানবো না: ইরাক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

ইরাকের ভাইস প্রেসিডেন্ট নুরি আল-মালিকি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছেন, তার দেশের উত্তরাঞ্চলে কুর্দিস্তান নামের কোনো ‘দ্বিতীয় ইসরাইলের’ অস্তিত্ব মেনে নেবে না বাগদাদ। তিনি আধা-স্বায়ত্বশাসিত কুর্দিস্তান অঞ্চলের বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ার প্রশ্নে পরিকল্পিত গণভোট স্থগিত রাখার আহ্বান জানিয়েছেন।

ইরাকের সাবেক প্রধানমন্ত্রী মালিকি রোববার বাগদাদে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত ডগলাস সিলিম্যানের সঙ্গে এক বৈঠকে এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।  তিনি বলেন, কুর্দিস্তানে অনুষ্ঠেয় এ গণভোট অবৈধ এবং এর মাধ্যমে ইরাকি জনগণ বিশেষ করে কুর্দি জনগণের কোনো লাভ হবে না।

এর আগে ইরাকের প্রধানমন্ত্রী হায়দার আল-এবাদি কুর্দিস্তানের গণভোটের বিরোধিতা করলেও এ প্রসঙ্গে এই প্রথম এত কঠোর ভাষায় প্রতিক্রিয়া জানাল বাগদাদ।  

নুরি আল-মালিকি বলেন, কুর্দিস্তানের বিচ্ছিনতাবাদী গোণভোট ইরাকের নিরাপত্তা, সার্বভৌমত্ব ও অখণ্ডতাকে মারাত্মক বিপদের দিকে ঠেলে দেবে । তিনি এই গণভোট প্রসঙ্গে ইরাক সরকার ও আন্তর্জাতিক সমাজের আহ্বানে সাড়া দেয়ার জন্য কুর্দিস্তানের প্রেসিডেন্ট মাসুদ বারজানির প্রতি আহ্বান জানান। তিনি বলেন, কুর্দিস্তানের কোনো সমস্যা থাকলে ইরাকের সংবিধানের আওতায় বাগদাদের সঙ্গে আলোচনায় বসে তার সমাধান করতে হবে।

গত ৭ জুন ইরাকের আধা-স্বায়ত্বশাসিত অঞ্চল কুর্দিস্তানের কিছু আঞ্চলিক দল ইরাক থেকে এই অঞ্চলের বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ার প্রশ্নে গণভোট অনুষ্ঠানের বিষয়ে একমত হয়। কুর্দিস্তানের প্রেসিডেন্ট মাসুদ বারজানির উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়, আগামী ২৫ সেপ্টেম্বর এই গণভোট অনুষ্ঠিত হবে।

কিন্তু ইরাকের কেন্দ্রীয় সরকার এই গণভোটের তীব্র বিরোধিতা করে একে অসাংবিধানিক বলে উল্লেখ করেছে। সেইসঙ্গে ইরাকের প্রতিবেশী দেশগুলোর পাশাপাশি আন্তর্জাতিক সমাজও এই গণভোটের বিরোধিতা করেছে।

Comments

comments