ব্রেকিং নিউজ

এনসিটিবি কার্যালয় আকস্মিক পরিদর্শনে শিক্ষামন্ত্রী!

প্রতিবেদক:
আজ ঢাকার মতিঝিলে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি) কার্যালয় আকস্মিকভাবে পরিদর্শনে যান। সেখানে তিনি দপ্তরের বিভিন্ন কার্যক্রম ঘুরে দেখেনএবংকর্মকর্তা-কর্মচারীদের সাথে কথাবলেন। 
পরে তিনি এনসিটিবি’রউর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে বৈঠক করেন। এনসিটিবি’র চেয়ারম্যানপ্রফেসর নারায়ন চন্দ্র সাহা, সদস্য ড. মিয়া ইনামুলহক সিদ্দিকীসহ এনসিটিবি’র বিভিন্ন শাখার কর্মকর্তাগণ বৈঠকেউপস্থিত ছিলেন। এসময় শিক্ষামন্ত্রী আগামী বছরের প্রাক-প্রথমিক থেকে নবম শ্রেণির বিনামূল্যের পাঠ্যপুস্তক ছাপার প্রস্তুতি ও গৃহীত কার্যক্রম সম্পর্কে কর্মকর্তাদের কাছে জানতে চান।তিনি পাঠ্য পুস্তক যথাসময়ে ছাপা সম্পন্নকরা এবং বিতরণের প্রস্তুতি বিষয়ে তাগিদ দেন। সময় মতএসবকাজ শেষ করার ব্যাপারে কর্মকর্তাদের কাছ থেকের্ নিশ্চয়তা চান শিক্ষামন্ত্রী। 
এসময়এনসিটিবি’রকর্মকর্তারাতাঁকেআশ্বস্ত করেনএবংসময়মতছাপারকাজসম্পন্নহবেবলেজানান। তারাবলেন, বইছাপার টেন্ডারসহসকলকার্যক্রম যথাসময়েসম্পাদনকরাহচ্ছে। প্রতিবছরেরন্যায় ২০১৮ সালের ১ জানুযারিশিক্ষার্থীদেরহাতেবইতুলে দেওয়া সম্ভব হবেবলেতারামন্ত্রীকেআশ্বস্ত করেন। 
শিক্ষামন্ত্রীবলেন, সবারমিলিতপ্রচেষ্টায়বছরেরশুরুতেপ্রথম থেকে নবম শেণিরশিক্ষার্থীদেরহাতেপাঠ্যপুস্তকতুলেদিতেচাই। সারাপৃথিবীতেএটা এক অতুলনীয়উদাহরন। এ ধারাঅব্যাহতরাখতেতিনিসংশ্লিষ্টদেরআন্তরিকতার সাথে কাজকরারআহবানজানান। এ ব্যাপারে যেকোনধরনেরগাফিলতি ও ব্যর্থতা মেনে নেয়াহবেনাবলেওহুঁশিয়ারকরেনমন্ত্রী।

Comments

comments