ব্রেকিং নিউজ

জেরুজালেমে ইসরাইলি সেনাদের গুলিতে ৪ ফিলিস্তিনি নিহত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

ফিলিস্তিনের বায়তুল মুকাদ্দাস বা জেরুজালেম শহরে অবস্থিত মুসলমানদের প্রথম কিবলা আল-আকসা মসজিদে নামাজ আদায়ের দাবিতে অনুষ্ঠিত সমাবেশে ইসরাইলি সেনা ও অবৈধ বসতি স্থাপনকারীরা আজ (শুক্রবার) আবার গুলি চালিয়েছে। এতে অন্তত তিন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। এছাড়া, আল-আকসা মসজিদকে কেন্দ্র করে সংঘটিত সংঘর্ষে আহত এক ফিলিস্তিনিও আজ মারা গেছে।

ফিলিস্তিনের মেডিক্যাল সূত্র ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, পুরনো বায়তুল মুকাদ্দাস শহরের রাস আল-আমুদ এলাকায় অবৈধ বসতি স্থাপনকারী ইহুদিরা ১৭ বছরের এক কিশোরকে গুলি করে। এতে মুহাম্মাদ মাহমুদ শারাফ নামে এ কিশোর মারাত্মক আহত হয় এবং হাসপাতালে নেয়ার পর মারা যায়। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, শারাফের ঘাড়ে গুলি লেগেছিল। মৃত্যুর পরপরই ফিলিস্তিনিরা তার লাশ নিয়ে মিছিল বের করে।

এদিকে, বায়তুল মুকাদ্দাস শহরের উত্তরে আর-রাম এলাকায় বের হওয়া মিছিলে ইসরাইলি পুলিশ বিষাক্ত গ্যাস ছুঁড়লে সাত বছরের এক শিশু শ্বাসরুদ্ধ হয়ে মারা যায়। বায়তুল মুকাদ্দাস শহরের আত-তুর এলাকায় মুহাম্মাদ আবু গানাম নামে ২০ বছর বয়সী এক ফিলিস্তিনিকে এক অবৈধ বসতি স্থাপনকারী ইহুদি গুলি করে শহীদ করেছে। নিহত গানাম বিরজেইত বিশ্ববিদ্যালয়ের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন।

অন্যদিকে, ইহুদিবাদীদের গুলিতে আহত এক ফিলিস্তিনি আজ বিকেলে রামাল্লা শহরের একটি হাসপাতালে মারা গেছেন। আজকের সংঘর্ষে অন্তত ৩৮০ জন ফিলিস্তিনি আহত হয়ে চিকিৎসা নিয়েছেন বলে আন্তর্জাতিক রেডক্রস জানিয়েছে।

গত শুক্রবার আল-আকসা মসজিদের কাছে ফিলিস্তিনিরা বিক্ষোভ করলে ইহুদিবাদী কর্তৃপক্ষ সেখানে মুসল্লিদের নামাজ আদায় বন্ধ করে দেয়। তারপর থেকে গত কয়েকদিন ধরে আল-আকসা মসজিদের আশপাশে বিক্ষোভ-সমাবেশ ও সংঘর্ষ   চলে আসছে।

Comments

comments