ব্রেকিং নিউজ

রমজানে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করা হলে কঠোর ব্যবস্থা- বাণিজ্যমন্ত্রী

tofayel-2
 প্রতিবেদক:

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, পবিত্র রমজান মাসকে সামনে রেখে যাতে কোন ধরনের মূল্যবৃদ্ধি বা পণ্যের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি না হয় সরকার সে বিষয়ে সতর্ক রয়েছে।

দেশে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য, মজুত ও সরবরাহ স্বাভাবিক রয়েছে উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, কৃত্রিম উপায়ে সংকট সৃষ্টির চেষ্টা করা হলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। বাজারে চাহিদার তুলায় অনেক বেশি পণ্য বর্তমানে মজুত রয়েছে। কোন পণ্যের সংকটের সম্ভাবনা নেই, বাজার দরও স্বাভাবিক এবং সাধারণ মানুষের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যেই থাকবে।

– বিজ্ঞাপন –

রবিবার সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে আসন্ন পবিত্র রমজান উপলক্ষে ব্যবসায়ীদের সাথে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের সরবরাহ, মূল্য পরিস্থিতি পর্যালোচনা সংক্রান্ত সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য পরিবহনে রাস্তায় বা ফেরী ঘাটে যাতে কোন ধরনের হয়রানি বা চাঁদাবাজি করা না হয়, সে বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। ফেরিতে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পণ্যবাহী যানবাহন পারাপার করা হবে। সুনির্দিষ্ট কোন অভিযোগ ছাড়া রাস্তায় পণ্যবাহী যানবাহন থামানো যাবে না। হাইওয়ে পুলিশ টহল জোরদার করবে। কোন ধরনের হয়রানির সাথে যেই জড়িত হবে, তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ ছাড়াও তোফায়েল আহমেদ বলেন, মাংস ব্যবসায়িদের সাথে আলাপ আলোচনার মাধ্যমে সমস্যা সমাধান করা হবে। আগামীতে মাংস ব্যবসায়ীরা আর ধর্মঘটে যাবে না। পবিত্র রমজান মাসকে সামনে রেখে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়েল অধীন ট্রেডিং করপোরেশন অফ বাংলাদেশ (টিসিবি) প্রতি বছরের মতো এবারও ন্যায্যমূল্যে খোলা বাজারে ভোজ্য তেল, মুসুর ডাল, চিনি, সোলা ও খেজুর বিক্রয় করবে। আগামী ১৫ মে থেকে দেশব্যাপী ২৮১১ জন ডিলারের মাধ্যমে এবং ঢাকা শহরে ৩৩টি, চট্টগ্রামে ১০টি, খুলনায় ৭টি, অন্যান্য বিভাগীয় শহরে ৫টি এবং জেলা শহরে ২টি করে ট্রাকের মাধ্যমে এ সকল পণ্য বিক্রয় করা হবে।

সভায় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব শুভাশীষ বসু, অতিরিক্ত সচিব মুন্সী সফিউল হক, অতিরিক্ত সচিব(এফটিএ) মো. শফিকুল ইসলাম, টিসিবির চেয়ারম্যান ব্রি. জে. সালেহ, জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের মহাপরিচালক মো. শফিকুল ইসলাম লস্কর, বিভিন্ন বিভাগের প্রধান, সিটি গ্রুপের চেয়ারম্যান ফজলুর রহমান, মেঘনা গ্রুপের চেয়ারম্যান মোস্তফা কামাল, টিকে গ্রুপের জেনারেল ম্যানেজার শফিউল আক্তার তাসলিম, এস আলম গ্রুপের সিনিয়র মহাব্যবস্থাপক কাজী সালাহউদ্দিন আহমেদসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও বিভাগের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন এবং তাঁরা তাঁদের মতামত প্রদান করেন।

Comments

comments