ব্রেকিং নিউজ

কোরিয়ায় মার্কিন সাবমেরিনে আছে ১৫৪ টমাহক ক্ষেপণাস্ত্র

সাবমেরিন-1
আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে উত্তেজনা আরো একধাপ বাড়িয়ে দিল আমেরিকা। কোরিয়া উপদ্বীপে তৈরি যুদ্ধ পরিস্থিতির মধ্যেই নতুন করে উত্তেজনা তৈরি করেছে দক্ষিণ কোরিয়ায় মার্কিন সাবমেরিনের উপস্থিতি। পরমাণু ক্ষেপণাস্ত্র বহনকারী ইউএসএস মিশিগান মঙ্গলবার সকালে দক্ষিণ কোরিয়ায় পৌঁছয়। সাবমেরিনটির কার্ল ভিনসন বিশাল বিমানবাহী রণতরীর সঙ্গে যোগ দেওয়ার কথা রয়েছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এমনটাই খবর জানিয়েছে। 
আজ মঙ্গলবার উত্তর কোরিয়ায় পালিত হচ্ছে দেশের সেনাবাহিনীর ৮৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। এর আগে এমন অনুষ্ঠানের সময়ে ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছে উত্তর কোরিয়া। এবারও এমন পরীক্ষা চালানো হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। আর সেই শঙ্কা থেকেই মার্কিন সাবমেরিন ওই অঞ্চলে পৌঁছে গেল কিনা তা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন।
উত্তর কোরিয়া সম্পর্কে বিস্তারিত মত প্রকাশের জন্য বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে পুরো মার্কিন সিনেটকে হোয়াইট হাউসে উপস্থিত থাকার আহ্বান জানানো হয়েছে। উল্লেখ্য, আমেরিকা ও উত্তর কোরিয়া পরস্পর উস্কানিমূলক কর্মকাণ্ড এবং মার্কিন বিমানবাহী রণতরী ভিনসন স্ট্রাইক গ্রুপকে কোরিয়া উপদ্বীপে পাঠানোর ঘোষণার পর সেখানে এখন কার্যত যুদ্ধাবস্থা জারি রয়েছে। পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্র ছাড়াও ইউএসএস মিশিগানে ১৫৪টি টমাহক ক্ষেপণাস্ত্র, ৬০ জন বিশেষ প্রশিক্ষিত সেনা এবং কয়েকটি মিনি-সাবমেরিন রয়েছে বলে দক্ষিণ কোরিয়ার সংবাদপত্র চসুন ইলবো জানিয়েছে।
মার্কিন শক্তি প্রদর্শনের অংশ হিসেবে কার্ল ভিনসনের সঙ্গে যুক্ত হয়ে ইউএসএস মিশিগান কোরিয়া উপদ্বীপে সামরিক মহড়া চালাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। মার্কিন নৌবাহিনী জানিয়েছে, রণতরী কার্ল ভিনসন নির্দেশ অনুসারে কোরিয়ার দিকে যাত্রা করেছে।

Comments

comments