ব্রেকিং নিউজ

প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম কিনতে বাংলাদেশকে ৫০০ কোটি ডলার ঋণ দিচ্ছে ভারত

ট্যাংক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
বাংলাদেশকে বিপুল পরিমাণ সাহায্য করতে চলেছে ভারত। প্রতিবেশী এই দেশের ১৬টি প্রজেক্টের জন্য অর্থ সাহায্য করবে ভারত সরকার। মোট ৫০০ কোটি ডলারের লাইন অফ ক্রেডিট দেওয়া হবে বলে জানা গিয়েছে। চলতি সপ্তাহের শেষে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারত সফরে এলে চূড়ান্ত হবে এই চুক্তি। এই প্রথম কোনও দেশকে এত টাকার ঋণ দিচ্ছে ভারত।

হাসিনার এবারের সফরে ৩০টিরও বেশি চুক্তি স্বাক্ষরিত হতে পারে বলে অনুমান করা হচ্ছে। জানা গিয়েছে, ২০১০ ও ২০১৫ সালে ভারত দু’টি লাইন অব ক্রেডিটের মাধ্যমে ৩০০ কোটি ডলার দিয়েছিল। আগের দু’টি লাইন অব ক্রেডিটে প্রথমে টাকার অঙ্ক নির্দিষ্ট করে পরে প্রকল্প নির্ধারণ করা হয়েছিল। কিন্তু এবারে প্রাথমিক ২৭টি প্রকল্পের মধ্যে ১৮টি প্রকল্প বাছাই করে মোট অঙ্ক যোগ করে লাইন অব ক্রেডিট নির্ধারণ করা হয়েছে।

এই ঋণে সুদের হার ১ শতাংশ। ২০ বছরের মধ্যে পরিশোধযোগ্য। প্রথম পাঁচ বছর গ্রেস পিরিয়ড থাকবে। প্রকল্পে ব্যবহৃত ৭৫ শতাংশ পণ্য ভারত থেকে আমদানি করতে হবে এবং প্রকল্পভেদে প্রয়োজন পড়লে এ’টি কমতে পারে। ভারতের এক্সিম ব্যাংক এই অর্থ যোগান দেবে। প্রকল্পগুলোর মধ্যে আছে রূপপুর নিউক্লিয়ার বিদ্যুৎ প্রকল্প, পায়রা বন্দরে টার্মিনাল নির্মাণ, বুড়িগঙ্গা নদী সংরক্ষণ, রেল রাইনে সহায়তা, বিদ্যুৎ খাতে সহায়তা, চট্টগ্রাম ড্রাই ডকে সহায়তা, সড়ক খাতে সহায়তা ইত্যাদি।

অস্ত্র কেনার লাইন অব ক্রেডিট:

ভারত থেকে অস্ত্র কেনার জন্য ঢাকাকে ৫০০ কোটি ডলারের লাইন অব ক্রেডিট দেবে দিল্লি। এর আগে ২০১৩ সালে বাংলাদেশ রাশিয়ার কাছ থেকে অস্ত্র কেনার জন্য ১০০ কোটি ডলারের ঋণ নিয়েছিল। দেশটি অস্ত্র কেনার জন্য রাশিয়া, আমেরিকা, ইজরায়েল, দক্ষিণ কোরিয়া ও কয়েকটি ইউরোপিয়ান দেশের ওপর নির্ভরশীল ছিল। বাংলাদেশ বেশিরভাগ অস্ত্র চিন থেকে কেনে। এছাড়া রাশিয়া ও কয়েকটি ইউরোপিয়ান দেশ থেকেও অস্ত্র সংগ্রহ করা হয়। এবারের প্রধানমন্ত্রীর সফরের সময়ে ব্যবসাবান্ধব সামরিক সহযোগিতা কাঠামো সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরেরও কথাও রয়েছে।কলকাতা ২৪

Comments

comments