ব্রেকিং নিউজ

পলাতক দেখিয়ে খালেদা জিয়াকে গ্রেপতার করতে পুলিশের আবেদন

khaleda-zia-thebdexpress

দ্য বিডি এক্সপ্রেস ডটকমঃ

পেট্টল বোমা হামলার দুই মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ ৫১ আসামির বিরুদ্ধে ঢাকা সিএমএম আদালতে পৃথক চার্জশিট দাখিল করেছে পুলিশ। গতকাল রাজধানীর দারুসসালাম থানার দ-বিধি ও বিশেষ ক্ষমতা আইনের ওই দুই মামলায় পুলিশ এই চার্জশিট দাখিল করে।

দারুসসালাম থানার ৪(৩)১৫ নম্বর দ-বিধি আইনের মামলায় এসআই শহিদুর রহমান খালেদা জিয়াসহ ২৭ জনের বিরুদ্ধে একটি চার্জশিট দাখিল করেন। অন্যদিকে একই থানার ৮(২)১৫ নম্বর বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলায় এসআই আবদুর রাজ্জাক খালেদা জিয়াসহ ২৪ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করেন। উভয় চার্জশিটের উল্লেখযোগ্য অপর আসামিরা হলেনÑ বিএনপি নেতা আমানউল্লাহ আমান, মীর শরাফাত হোসেন শফু, হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, সৈয়দা আসিফা আশরাফী পাপিয়া, মারুফ কামাল খান সোহেল, সুলতান সালাউদ্দিন টুকু প্রমুখ। উভয় মামলায় খালেদা জিয়াকে পলাতক দেখিয়ে তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আবেদন করা হয়েছে। আর দুটি মামলারই এজাহারে সাবেক এই প্রধানমমন্ত্রীর নাম ছিল না। তদন্তে তার সম্পৃক্ততা পাওয়ায় তাকে চার্জশিটভুক্ত করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

দারুসসালাম থানার ৪(৩)১৫ নম্বর মামলায় বিএনপিসহ বিরোধী দলের অবরোধ চলাকালে ২০১৫ সালের ৩ মার্চ রাত ৩টা ২০ মিনিটে গাবতলী বাসস্ট্যান্ডের পূর্ব-দক্ষিণ কোণে গ্রেটওয়াল মাঠে থাকা বাসে পেট্রল দিয়ে অগ্নিসংযোগ করার অভিযোগ আনা হয়েছে। ঘটনায় ওইদিনই দারুসসালাম থানার এসআই শাহ আলম বাদী হয়ে ২০ জনকে আসামি করে মামলা করেন।

অন্যদিকে দারুসসালাম থানার ৮(২)১৫ নম্বর মামলায় বিএনপিসহ বিরোধী দলের অবরোধ চলাকালে ২০১৫ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি দুপুর ১টার দিকে দারুসসালাম থানাধীন মাজারের পূর্ব পাশে একটি বাসে পেট্রল দিয়ে অগ্নিসংযোগ করার অভিযোগ আনা হয়। ওই ঘটনায় ওইদিনই দারুসসালাম থানার এসআই মনির হোসেন বাদী হয়ে ১৯ জনকে আসামি করে মামলাটি করেন।

উল্লেখ্য, পেট্রল বোমায় মানুষ পুড়িয়ে হত্যা ও দগ্ধ হওয়ায় যাত্রাবাড়ী থানার একটি মামলায় ২০১৫ সালের ৬ মে খালেদা জিয়াসহ ৩৮ জনের বিরুদ্ধে বিরুদ্ধে দ-বিধি (হত্যা) এবং বিস্ফোরক আইনে ২টি এবং ওই বছর ১৯ মার্চ বিশেষ ক্ষমতা আইনের আরেকটি মামলায় চার্জশিট দাখিল করেন  গোয়েন্দা পুলিশ। 

Comments

comments