ব্রেকিং নিউজ

নাৎসি জার্মানির সাথে বর্তমান ইসরায়িলি সমাজের মিল রয়েছে-জেঃ ইয়াইর

generel-israil

ইসরায়েলি সামরিক বাহিনীর দ্বিতীয় প্রধান ব্যক্তির এক মন্তব্যের জেরে তার তীব্র সমালোচনা করেছেন প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু।

সামরিক বাহিনীর উপ-প্রধান মেজর জেনারেল ইয়াইর গোলান নাৎসি জার্মানির সাথে বর্তমান ইসরায়েলি সমাজের তুলনা করেছিলেন।

বার্ষিক হলোকাস্ট ডে বা ইহুদি নিধনযজ্ঞ স্মরণ দিবস পালনের প্রাক্কালে এই জেনারেল বলেছেন, ১৯৩০ এর দশকে নাৎসি জার্মানিতে অসহিষ্ণুতার যে ঘৃণ্য প্রকাশ ঘটেছিলো সেরকম কিছু প্রবণতা তিনি এখনকার ইসরায়েলি সমাজে দেখতে পাচ্ছেন।

তার এই বক্তব্যের পর ইসরায়েলে তাকে ঘিরে বড় রকমের আলোচনা শুরু হয়েছে।অনেকে তাকে বরখাস্ত করারও দাবি জানিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু এই জেনারেলের তীব্র সমালোচনা করতে গিয়ে তাকে ভর্ৎসনা করে বলেছেন, এধরনের বক্তব্য ক্ষোভের জন্ম দিয়েছে। এসব কথাবার্তায় হলোকাস্টকে সস্তা করে ফেলা হয়েছে এবং এসবের মাধ্যমে ইসরায়েলের ক্ষতি করা হয়েছে।

তিনি বলেছেন, ৮০ বছর আগে নাৎসি জার্মানিতে যা ঘটেছিলো তার সাথে তুলনা দিয়ে ইসলায়েলি সমাজের সাথে অন্যায় করা হয়েছে।তার মতে এধরনের বক্তব্য কিছুতেই গ্রহণযোগ্য নয়।

ফরাসী বার্তা সংস্থা এএফপি বলছে, জেনারেল ইয়াইর গোলান মন্তব্য করেছেন, “মানুষের প্রকৃত স্বভাব কি সেটা আমাদের দেখা উচিত। এমন কি সেটা যদি আমরা নিজেরাও হই তাহলেও সেটা দেখা উচিত।”

তিনি বলেন, “যদি কোনোকিছু আমাকে ভীত-সন্ত্রস্ত করে থাকে সেটা হলো হলোকাস্টের স্মৃতি, ইউরোপে যা ঘটেছিলো, বিশেষ করে ৭০,৮০ এবং ৯০ বছর আগের জার্মানিতে। এবং আজকের দিনে, ২০১৬ সালে, আমাদের মধ্যে সেই একই জিনিসও দেখতে পাওয়াটাও খুব ভয়ের।”

“বিদেশিদের ঘৃণা করার চেয়ে সহজ আর কিছু নেই..যা ভয়ের জন্ম দেয়।” বলেন এই ইসরায়েলি জেনারেল। ইসরায়েলি প্রতিরক্ষামন্ত্রী মোশে ইয়ালন, সামরিক প্রধান এবং আরো কিছু কর্মকর্তা জেনারেল গোলানের বক্তব্যকে সমর্থন করেছেন।

তারা বলছেন, জেনারেল গোলানের এই বক্তব্যে ইসরায়েলি সমাজের বর্তমান কিছু সমস্যা উঠে এসেছে।

Comments

comments