ব্রেকিং নিউজ

চট্টগ্রামে জামায়াত নেতা পুলিশের গুলিতে নিহত

 

osman-thebdexpressচট্টগ্রাম প্রতিনিধি:

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে পুলিশের গুলিতে এক জামায়াত নেতা নিহত হয়েছে।  মঙ্গলবার বেলা ৩টার দিকে উপজেলার রহমত নগর সিরাজ ভূঁইয়ার রাস্তার মাথা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত জামায়াত নেতার নাম মোঃ ওসমান গনি (২৮)। তিনি উপজেলার ৫ নম্বর মুরাদপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ রহমত নগর গ্রামের মোঃ আবুল কাশেম মোল্লার ছেলে এবং স্থানীয় ইউনিয়ন জামায়াতের অর্থ সম্পাদক ছিলেন। 

পুলিশ দাবি করেছে, পালাতক আসামি ওসমানকে গ্রেপ্তার করে আনার সময় তার সহযোগি ও স্বজনরা পুলিশের কাছ থেকে ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করলে পুলিশের সাথে তাদের ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে শর্টগান থেকে গুলি বেরিয়ে ওসমান মারা যায়।

নিহত ওসমানের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, জামায়াত নেতা ওসমানের বিরুদ্ধে বিগত সময়ে কয়েকটি মিথ্যা মামলা দায়ের করে পুলিশ। সম্প্রতি তাকে পুলিশ গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠায়। 
সম্প্রতি তিনি আদালত থেকে সবকটি মামলায় জামিন নিয়ে মুক্তি পান। মুক্তি পেয়ে তার নিজ গ্রামের বাড়িতে অবস্থান করে পরিবারকে দেখভাল করছিলেন। 
ওসমানের পিতা আবুল কাশেম মোল্লা জানান, এদিন ওসমান পারিবারিক কিছু কাজ শেষ করে রান্নাঘরে দুপুরের ভাত খেতে বসেন। এসময় সীতাকুণ্ড মডেল থানার এসআই ইকবালের নেতৃত্বে একদল পুলিশ বাড়ি ঘিরে ফেলে। পুলিশ আসার খবর পেয়ে তিনি ভয়ে আতঙ্কিত হয়ে ঘরের পিছন দিকে বের হয়ে দৌড়ে চলে যাওয়ার চেষ্টা করেন। তিনি আরো জানান, এসময় পুলিশ তাকে দাঁড়ানোর অনুরোধ অথবা ধরার কোনো চেষ্টা না করেই পিছন দিক থেকে গুলি করে।
 

তবে স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে- এক সপ্তাহ আগে জামিন পেয়ে বাড়িতে আসে ওসমান। মঙ্গলবার দুপুরে রহমত নগর গ্রামে দুপুরে নিজ ঘরে বসে ভাত খাওয়ার সময় সাদা পোশাকধারী পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করে। এসময় ওসমান পুলিশের হাত থেকে পালিয়ে বাড়ির পুকুরে ঝাপ দেয়। পুকুরে অপর পাড় দিয়ে উঠে পালিয়ে যাওয়ার সময় পুলিশ গুলি করলে ঘটনাস্থলে তিনি মারা যান।

এ ঘটনার পর স্থানীয় গ্রামবাসী পুলিশকে ধাওয়া করলে পুলিশ পালিয়ে গ্রাম ছাড়ে। পরে এলাকার লোকজন ওসমানকে সীতাকু- স্বাস্থ কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করে।

চট্টগ্রাম জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার উত্তর মুস্তাফিজুর রহমান বলেন, জামায়াতের সন্ত্রাসী ওসমান গণি দীর্ঘদিন পালিয়ে ছিল। আজ তার গ্রামে আসার খবর পেয়ে তাকে আটকের জন্য অভিযান চালায় পুলিশ। এসময় সে পুলিশের অস্ত্র ছিনতাই এর চেষ্টা চালায়, এসময় সে গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই নিহত হয়। 

Comments

comments