ব্রেকিং নিউজ

কুষ্টিয়া জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি ও সম্পাদক গ্রেফতার

কুষ্টিয়া প্রতিনিধিঃ শুক্রবার ভোর রাত পৌনে ৫টার দিকে গাজীপুর জেলার মওনা এলাকার ড্রিম স্কয়ার রিসোর্ট থেকে জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি আক্তারুজ্জামান লাবুকে র‌্যাব গ্রেফতার করে। একই সাথে র‌্যাব সদস্যরা ওই রিসোর্টের মালিক মনিরুজ্জামানকেও গ্রেফতার করেছে বলে পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়।

শুক্রবার সকালে কুষ্টিয়া প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে কুষ্টিয়া জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ সাজ্জাদ হোসেন সবুজের পরিবারের পক্ষ থেকে এ দাবি করা হয়েছে।

সবুজের মা সাহেদা বেগম বলেন, শুক্রবার ভোর রাত পৌনে ৫টার দিকে গাজীপুর জেলার মওনা এলাকার ড্রিম স্কয়ার রিসোর্ট থেকে আমার ছেলে (সবুজ) ও জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি আক্তারুজ্জামান লাবুকে গ্রেফতার করে। একই সাথে র‌্যাব সদস্যরা ওই রিসোর্টের মালিক মনিরুজ্জামানকেও গ্রেফতার করেছে বলে পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়। এ ব্যাপারে পরিবারের পক্ষ থেকে সবুজ এবং লাবুর গ্রেফতারে বিষয়ে র‌্যাবসহ প্রশাসনের সাথে যোগাযোগ করা হলেও তাদেরকে কোন তথ্য জানানো হচ্ছে না বলে তারা দাবি করেন।

সাংবাদিক সম্মেলনে সবুজের স্ত্রী জান্নাতুল ফেরদৌস জিনিয়া প্রধানমন্ত্রীর নিকট অনুরোধ জানিয়ে বলেন, আমার স্বামী সবুজ যদি অপরাধ করে থাকে বা অন্যায় করে থাকে তাহলে তাকে আইনের আওতায় আনা হোক। সংবাদ সম্মেলনে সবুজের বাবা শেখ কাইজার হোসেন (ছোট), তার মা সাহিদা বেগম, স্ত্রী জান্নাতুল ফেরদৌস জিনিয়া, ছেলে শাহেদ হোসেন প্রেম, মেয়ে সুমাইয়া ফেরদৌসসহ পরিবারের সদস্যরা উপিস্থিত ছিলেন। এদিকে লাবু এবং সবুজের গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে গাজীপুর জেলার মওনা এলাকার ড্রিম স্কয়ার রিসোর্টের অপারেশন ম্যানেজার শিমুল সাংবাদিকদের জানান, শুক্রবার ভোরে র‌্যাব সদস্যরা ওই রিসোর্টের প্রধান ফটকের গ্রিল কেটে সেখানকার নৈশ্য প্রহরীদের বেধে রেখে প্রথমে রিসোর্টের মালিক মনিরুজ্জামানকে গ্রেফতার করে পরবর্তীতে ওই রিসোর্ট থেকে  কুষ্টিয়া জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি আখতারুজ্জামান লাবু ও সাধারণ সম্পাদক শেখ সাজ্জাদ হোসেন সবুজকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায়। শিমুল জানান, এ সময় রিসোর্ট থেকে ৩ টি ওয়ারলেস সেট ও ৫টি মোবাইল ফোনও জব্দ করে নিয়ে যায় র‌্যাব সদস্যরা। স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি কাউসার মোল্লার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, কুষ্টিয়া জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি আখতারুজ্জামান লাবু ও সাধারণ সম্পাদক শেখ সাজ্জাদ হোসেন সবুজকে র‌্যাব সদস্যরা গাজীপুর থেকে গ্রেফতার করেছে বলে তারা নিশ্চিত হয়েছেন। প্রসঙ্গত গত ১৫ আগস্ট কুষ্টিয়া শহরে জাতীয় শোক দিবসের কর্মসূচী শেষে আওয়ামী লীগের দু গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষে সবুজ নামে একজন নিহত ও ৫ জন আহত হন। এ ঘটনার পর দিন নিহত সবুজের ভাই আরিফ বাদী হয়ে কুষ্টিয়া মডেল থানায় জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ সাজ্জাদ হোসেন সবুজকে প্রধান আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

Comments

comments