ব্রেকিং নিউজ

টিকিট্ দিতে দেরি হওয়ায় রাজশাহী রেল সুপার বরখাস্ত

সুজন আলিঃ রাজশাহী রেলওয়ের ষ্টেশন সুপারিন্টেডেন্ট আবদুল করিমকে সাময়িক বরখাস্তের ঘটনায় রেলের মহাপরিচালকের বিরুদ্ধে ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগ উঠেছে। গত শুক্রবার করিমকে টিকিট বাণিজ্যের অভিযোগের ভিত্তিতে বরখাস্ত করা হয়।

শুক্রবার রেলের মহাপরিচালক (ডিজি) আমজাদ হোসেনের স্ত্রীর বড় ভাইকে তিনটি টিকিট দিতে দুই ঘন্টা দেরি হওয়ার আব্দুল করিমকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

যদিও আব্দুল করিমের বিরুদ্ধে আগে থেকেই টিকিট বাণিজ্যসহ নানা অভিযোগ ছিল।

রাজশাহী নগরীর শিরোইল কলোনী এলাকার বাসীন্দা ও রেলওয়ের ডিজি আমজাদ হোসেনের স্ত্রীর বড় ভাই বদরুল আলম শুক্রবার বিকেলে তিনটি টিকিটের জন্য ষ্টেশন সুপারিন্টেডেন্ট আব্দুল করিমের কাছে যান। কিন্তু আব্দুল করিমকে না পেয়ে বদরুল আলম তার ভগ্নিপতি রেলওয়ের ডিজি আমজাদ হোসেনকে মোবাইলে ফোন দেন। পরে ডিজি আব্দুল করিমকে  ফোনে না পেয়ে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন। এরপর তিনি পশ্চিমাঞ্চল রেলের জিএমসহ অন্য কর্মকর্তাদের বিষয়টি জানালে তারা বদরুল আলমের জন্য তিনটি এসি বাথের টিকিটের ব্যবস্থা করে।

এ ঘটনার পরে ওইদিন সন্ধ্যায় আব্দুল করিমকে বাংলাদেশ রেলওয়ের প্রধান কার্যালয় থেকে পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের মহাব্যবস্থাপকের কার্যালয়ে জরুরি ফ্যাক্স বার্তার মাধ্যমে সায়মিক বরখাস্তের চিঠি পাঠানো হয়।

তবে এ বিষয়ে মুঠোফোনে আব্দুল করিমের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও তিনি এ নিয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

রেলওয়ে সূত্র মতে, ক্ষমতার অপব্যহারের মাধ্যমেই ষ্টেশন সুপারিন্টেডেন্ট আব্দুল করিমকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়। তার বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগের কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।

পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের মহাব্যবস্থাপক খায়রুল আলম আব্দুল করিমকে সাময়িকভাবে বরখাস্তের কথা স্বীকার  করলেও এ ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

Comments

comments