ব্রেকিং নিউজ

জাতীয় মহাসড়কে থ্রি হুইলার অটোরিকশা নিষিদ্ধ

থ্রীহুইলারপ্রতিবেদকঃ আগামী ১ আগস্ট থেকে জাতীয় মহাসড়কে অটোরিকশা ও অযান্ত্রিক যানবাহন চলাচল নিষিদ্ধ করেছে সরকার। সোমবার সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, জাতীয় মহাসড়কে থ্রি-হুইলার অটোরিকশা ও অটোটেম্পো এবং সব শ্রেণীর অযান্ত্রিক যানবাহন চলাচল নিষিদ্ধ করা হয়েছে। সড়ক নিরাপত্তা বিধানে এ আদেশ ১ আগস্ট থেকে কার্যকর হবে বলে প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়। অটোরিকশার কারণে মহাসড়কে প্রায়ই দুর্ঘটনা ঘটছে বলে সম্প্রতি আলোচিত হচ্ছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে সরকার এ সিদ্ধান্ত নিল। এর আগে গত ২২ জুলাই সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ে এক সভায় মহাসড়কে অটোরিকশা নিষিদ্ধের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।সড়ক নিরাপত্তা বিধানে ১ আগস্ট থেকে সকল জাতীয় মহাসড়কে থ্রি হুইলার অটোরিক্সা ও অটোটেম্পো এবং সকল শ্রেণীর অযান্ত্রিক যানবাহন চলাচল নিষিদ্ধ। মহাসড়কে কম গতির ছোট গাড়িগুলোকে দুর্ঘটনার জন্য দায়ী করে তা চলাচল বন্ধের দাবি দীর্ঘদিন ধরে জানিয়ে আসছিল বাস মালিক-চালকরা।
সড়ক দুর্ঘটনা এড়াতে এরকম সিদ্ধান্তের বিকল্প না থাকলেও এর বাস্তবায়ন নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে। গেল প্রায় এক যুগ ধরে সড়ক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে যেসব সিদ্ধান্ত হয়েছে এর অধিকাংশই আলোর মুখ দেখেনি। সড়ক-মহাসড়কে অযান্ত্রিক ও অনুমোদনহীন পরিবহন চলাচল বন্ধে একাধিকবার সিদ্ধান্ত হলেও তা কার্যকর সম্ভব হয়নি। যদিও সাম্প্রতিক সময় ধরে সড়ক পরিবহন মন্ত্রী দাবি করে আসছেন, মহাসড়কে ব্যাটারিচালিত অটোরিক্সাসহ নসিমন, করিমন, ভটভটিসহ মহেন্দ্রার উপদ্রব কমেছে। সড়ক দুর্ঘটনার জন্য নতুন আপদ হয়ে এসেছে অটোরিক্সা। বেপরোয়া ড্রাইভিং আর অটোরিক্সার কারণেই বারবার সড়ক দুর্ঘটনা হচ্ছে।
গত ঈদের আগে-পরের কয়েকটি দুর্ঘটনার পর মহাসড়কে অটোরিক্সা চলাচল নিষিদ্ধের সিদ্ধান্ত নেয়ার কথা জানান মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

Comments

comments