ব্রেকিং নিউজ

ফ্রান্সে ইসলাম নিষিদ্ধ করতে হবে- রবার্ট চারডন

রবর্ট চারডনদ্য বিডি এক্সপ্রেসঃ ফ্রান্সে ইসলাম নিষিদ্ধের ডাক দিয়ে নিজ রাজনৈতিক দল ইউনিয়ন ফর এ পপুলার মুভমেন্ট (ইউএমপি)। দক্ষিণ ফ্রান্সের ভেনিলেসের ইউএমপি মেয়র রবার্ট চারডন টুইটারে লেখেন: ‘ফ্রান্সে মুসলিমদের ধর্মকে অবশ্যই নিষিদ্ধ করতে হবে। আর ফ্রান্সের কেউ যদি ওই ধর্মের চর্চা করে তাকে সীমান্তের ওপারে দিয়ে আসতে হবে।’পশ্চিমা ভোগবাদি শক্তি গুলো ইসলামের বিরুদ্ধে হাজারও ষড়যন্ত করেও অগ্রযাত্রা ঠেকাতে ব্যার্থ হয়ে এখন ইসলাম নিষিদ্ধের দাবি তুলছে। গত শতকের আশির দশক থেকে মার্কিন ও  ইসরাইলী চক্রান্তে মুসলিম বিশ্বের মূল কাঠামো ধ্বংসের স্বার্থে তালেবান, আলকায়েদা, বকোহারাম,আই এসের মতো জঙ্গিগোষ্টিকে আশ্রয় প্রশ্রয় ও মদদ দিয়ে আসছে। ইসরাইল পন্হি রবার্ট চারডন দাবি করেন, ২০২৭ সালের মধ্যেই ফ্রান্সে ইসলাম নিষিদ্ধ হবে। এই বক্তব্যর সাথে একই দলের সদস্য সাবেক ফরাসি প্রেসিডেন্ট নিকোলাস সারকোজির টুইটার (হ্যাশট্যাগ #এনএস ডিরেক্ট) ব্যবহার করে যে আলাপ-আলোচনা শুরু করেছিলেন তার এই টুটইটটিও সে আলোচনারই অংশ ছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে সারকোজি ওই টুইটারের সঙ্গে নিজের সংশ্লিষ্টতা অস্বীকার করার জন্য সঙ্গে সঙ্গেই এক টুইটার বার্তায় এর নিন্দা করেন। তিনি বলেন, ‘আমি এই প্রস্তাবের নিন্দা করছি। যদিও সেক্যুলারিজম কোনো কিছুকে সীমাবদ্ধ করাটাও সমর্থন করে। অধিকার ও সীমাবদ্ধতা হাত ধরাধরি করে চলতেই পারে; তাতে কোনো সমস্যা নেই।’ ইউএমপি ভাইস প্রেসিডেন্ট নাথালি কসিউস্কো-মরিজেট ঘোষণা করেছেন, মি. চারডনকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। তিনি বলেন, চারডন যে মন্তব্য করেছেন তার সঙ্গে ইউএমপির মূল্যবোধ ও কর্মসুচির কোনোই মিল নেই।

Comments

comments