ব্রেকিং নিউজ

বিক্ষোভের মুখে খালেদা জিয়ার দ্বিতীয় দিনের নির্বাচনী প্রচারণা

Khaleda-ziaপ্রতিবেদকঃ রাজধানীর উত্তরায় দ্বিতীয় দিনের মতো নির্বাচনে প্রচারণা করতে গিয়ে বাধার মুখে পড়েছে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গাড়িবহর। ঢাকা উত্তরের মেয়রপ্রার্থী তাবিথ আউয়ালের পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণা চালাতে উত্তরায় প্রবেশের পথে তার গাড়িবহরে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা কালোপতাকা হাতে বিক্ষোভ করতে থাকে।

রবিবার বিকাল ৫টার দিকে খালেদা জিয়ার বহনকারী গাড়িবহর বিমানবন্দর পার হয়ে উত্তরা ১নং সেক্টরের ৬নং রোডের প্রবেশমুখে পৌঁছলে মুখে কালো কাপড় বেঁধে ও হাতে কালো পতাকা নিয়ে ৫ শতাধিক মানুষ প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে। এ সময় তারা বিভিন্ন স্লোগান দেয়।

‘আওয়ামী লীগের লোকজন গাড়িবহরের পাশে দাঁড়িয়ে স্লোগান দিয়েছে।’ প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, আওয়ামী লীগের পাঁচ শতাধিক নেতাকর্মী খালেদা জিয়ার গাড়িবহরের কাছে কালো পতাকা প্রদর্শন করে।  ‘আমার ভাই মরল কেন খুনী খালেদা জবাব চাই’ ইত্যাদি স্লোগান দেয়।

দ্বিতীয়দিনের মতো বিকাল সাড়ে চারটায় গুলশানের নিজ বাসভবন ‘ফিরোজা’ থেকে গাড়ীবহর নিয়ে বেরিয়ে পাঁচটার দিকে উত্তরার জসিম উদ্দিন মোড়ে পৌঁছান খালেদা জিয়া।

সেখানে আগে থেকেই জড়ো হওয়া স্থানীয় আওয়ামী লীগ-ছাত্রলীগ-যুবলীগের নেতাকর্মীরা কালো পতাকা হাতে বিক্ষোভ করতে থাকে। ফলে সেখানে বেগম জিয়া না নেমে সামনে অগ্রসর হন। তার গাড়িবহর গিয়ে থামে উত্তরা মডেল টাউনে এসবি প্লাজার সামনে। খালেদা জিয়া গাড়ি থেকে নামলে তার বহরকে ঘিরে সরকার সমর্থকরা। তিনি সেখান থেকেও চলে যান। সেখান থেকে খালেদা জিয়া যান উত্তরা ৩ নম্বর সেক্টরে। এখানে ছাত্রদল ও বিএনপি নেতাকর্মীদের অবস্থানের কারণে সরকার সমর্থক কর্মীরা পিছু হটে।

ফলে খালেদা জিয়া নির্বিঘ্নে প্রচারণা চালানোর সুযোগ পান। নিজ হাতে তিনি তাবিথের লিফলেট তুলে দেন দোকানি, পথচারীদের হাতে। তবে এই বাধায় তখন পর্যন্ত বিচলিত হননি খালেদা জিয়া। খালেদা জিয়া উত্তরার ইনফিনিটি প্লাজায় প্রবেশ করে নির্বাচনী প্রচারণা চালান। সেখানে বিপুল সংখ্যক বিএনপি ও ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা ছিলেন। বহরে বিএনপি ও এর অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মীরা দলে দলে আসতে শুরু করেন। ইনফিনিটি প্লাজা থেকে বেরিয়ে তিনি আমির কমপ্লেক্সে গিয়ে প্রচারণা চালান।

Comments

comments