ব্রেকিং নিউজ

ফাইনালে দুই স্বাগতিকের লড়াই

ফাইনালবিশ্বকাপপ্রতিবেদকঃ ১১তম বিশ্বকাপের সহ-আয়োজক দুই দেশ অষ্টেলিয়া নিউজিল্যান্ড, মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে ময়দানে যুদ্ধে মুখোমুখি হবে তারা। আজ রোববার ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে নয়টায়। আবেগ বাইরে রেখে বিচার করলে বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠে এসেছে সেরা দুই দল।চার বছরের জন্যে বিজয়ীর সিংহাসনে বসে ক্রিকেটের সাম্রাজ্য শাসন করার চাবি পেয়ে যায় তারা। সেই ক্রিকেটীয় যুদ্ধে রোববার মুখোমুখি হচ্ছে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড।  ট্রফিটিকে নিজেদের করে পেতে তারা আজ যুদ্ধে লিপ্ত হবেন। মাইকেল ক্লার্ক বনাম ব্রেন্ডন ম্যাককালাম।

বিশ্বকাপের আগে ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কা ও পাকিস্তানকে ওয়ানডে সিরিজে হারিয়ে বিশ্বকাপের জন্যে মঞ্চটা বেশ ভালোমতই প্রস্তুত করে রাখে নিউজিল্যান্ড। পারফরমেন্সের ধারাবাহিকতায় এবারের বিশ্বকাপেও তারা চমক দেখায়। ঘরের মাঠে প্রতিটি ম্যাচ জিতে ফাইনালে উঠেছে তারা। এখন পর্যন্ত একটি ম্যাচও হারেনি তারা।   কোয়ার্টারে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও সেমিতে দক্ষিণ আফ্রিকাকে উড়িয়ে দিয়ে ইতিহাস গড়ে, প্রথমবারের মতো ফাইনালে জায়গা করে নেয় কিউইরা। নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতার পর সেমিফাইনালে হার মেনেছিল দক্ষিণ আফ্রিকা।

অন্যদিকে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ১ উইকেটে হারের ম্যাচটি বাদ দিলে অস্ট্রেলিয়া ধরা-ছোঁয়ার বাইরে। নিজেদের মাটিতে প্রতিপক্ষরা তাদের সামনে মাথা উচুঁ করে দাঁড়াতে পারেনি। গ্রুপ পর্ব থেকে সেমিফাইনাল পর্যন্ত প্রতিটি ম্যাচে দাপট দেখিয়ে জয় তুলে নিয়েছে তারা। ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন ভারতকে বিদায় করেছে তারা। ক্রিকেট বিশ্বের তিন শক্তির এক শক্তি ভারত অসিদের কাছে ৯৫ রানের বিশাল ব্যবধানে লজ্জাজনক ভাবে হেরে টুর্ণামেন্ট থেকে বিদায় নেয়। এর আগে ছয়বার বিশ্বকাপ ফাইনাল খেলে চারটিতে জিতেছে অস্ট্রেলিয়া। ১৯৮৭, ১৯৯৯, ২০০৩ ও ২০০৭ বিশ্বকাপের শিরোপা জিতেছিল অস্ট্রেলিয়া।তবে এবারই প্রথম বারের মতো বিশ্বকাপের ফাইনাল খেলতে যাচ্ছে নিউজিল্যান্ড।

Comments

comments