ব্রেকিং নিউজ

কোয়ার্টার ফাইনালে পাকিস্তান

পাকিদ্য বিডি এক্সপ্রেসঃ অ্যাডিলেড ওভালে বাঁচা-মরার লড়াইয়ে মুখোমুখি হয় পাকিস্তান ও আয়ারল্যান্ড। গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচটিতে দুর্দান্ত সেঞ্চুরি করেন পাকিস্তানের ওপেনার সরফরাজ আহমেদ। তার ব্যাটিং নৈপূণ্যে আয়ারল্যান্ডকে ৭ উইকেটে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালের টিকিট নিশ্চিত করেছে পাকিস্তান। আইরিশদের দেওয়া ২৩৮ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে দারুণ সূচনা এনে দিলেন দুই ওপেনার আহমেদ শেহজাদ ও সরফরাজ। দুজনের ওপেনিং জুটিতে আসে ১২০ রান। স্টুয়ার্ট টম্পসনের বলে ফেরার আগে শেহজাদের ব্যাট থেকে আসে ৬৩ রান। এরপর কিছুটা ছন্দপতন। ৩ রানে কাটা পড়লেন হারিস সোহেলও। তখন বিনা উইকেটে ১২০ রান থেকে ২ উইকেটে ১২৬। এরপর আর ছন্দপতনের সুযোগ দেননি মিসবাহ। সরফরাজের সঙ্গে মিসবাহর তৃতীয় উইকেট জুটিতে আসে ৮২ রান। কুসাকের বলে অদ্ভুত এক আউট হওয়ার আগে মিসবাহর সংগ্রহ ৩৯ রান। সরফরাজ-উমর আকমলের চতুর্থ উইকেটে অবিচ্ছিন্ন ৩৩ রানে জয় নিশ্চিত হয় পাকিস্তানের। সরফরাজ অপরাজিত ছিলেন ১০১ ও আকমল ২০ রানে। এ বিশ্বকাপে পাকিস্তানের এই প্রথম কোনো ব্যাটসম্যান পেলেন সেঞ্চুরি।
এর আগে পোর্টারফিল্ডের শতকে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ২৩৭ রানে অলআউট হয় আয়ারল্যান্ড। সংগ্রহটা ভদ্রস্থ হলেও লড়াই করার মতো ছিল না, নিশ্চয় ম্যাচ শেষে বুঝেছে আইরিশরা। তবে বড় দলকে চমকে দিয়ে এ বিশ্বকাপে আয়ারল্যান্ডের প্রাপ্তিও কম নয়। ওয়েস্ট ইন্ডিজের সমান ৬ পয়েন্ট থাকার পরও রান রেটের কারণে শেষ আটের ঠিকানা পেল না তারা।
অন্যদিকে, অনেক বোদ্ধা এবার বিশ্বকাপে পাকিস্তানের পারফরম্যান্সে ’৯২-এর ছায়া দেখছেন। বিশ্বকাপে বাজে শুরুর পর পরপর চার ম্যাচে ঘুরে দাঁড়ানো কি তবে ‘কোণঠাসা বাঘের’ কথাই মনে করিয়ে দিচ্ছে? গ্রুপ পর্বের শেষ দিনটি পর্যন্ত কোয়ার্টার ফাইনাল নিয়ে উৎকণ্ঠায় ছিলেন পাকিস্তানি সমর্থকেরা; সেই দুশ্চিন্তা দূর হয়েছে আপাতত।

Comments

comments