আইনজীবী তাজুলকে ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ

তাজুলদ্য বিডি এক্সপ্রেসঃ আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে জামায়াত নেতাদের অন্যতম আইনজীবী তাজুল ইসলামকে আটকের দুই ঘণ্টা পর ছেড়ে দিয়েছে পল্টন থানা পুলিশ।

পল্টন থানা থেকে ছাড়া পাওয়ার পর অ্যাডভোকেট তাজুল ইসলাম জানান, "এটা একটা ভুল বোঝাবুঝি। পুলিশের বিরুদ্ধে আমাদের কোনো অভিযোগ নাই। আপনারা জানেন যে, সন্ধ্যার সময় কাকরাইল মোড়ে বেশ কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণ হয়েছিল। তখন লোকজন দৌড়াদৌড়ি করছিল। পুলিশ নাশকতাকারীদের ধরতে রোকেয়া ভবনে অবস্থিত আমাদের অফিসেও প্রবেশ করে। এ সময় অন্যান্য আইনজীবীদের অফিসগুলো বন্ধ ছিল। আমাদের অফিস থেকে মোট সা জনকে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসে। এরপর অ্যাডভোকেট শিশির মোহাম্মদ মনির থানায় এসে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের নির্দেশনা দেখালে এবং আইনজীবী পরিচয় পাওয়ার পর তারা আমাদের ছেড়ে দেয়।"


এর আগে তাজুল ইসলামের স্ত্রী সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন, আজ (বৃহস্পতিবার) রাত পৌনে ৮টার দিকে রাজধানীর নয়াপল্টনে তাজুল ইসলামের ব্যক্তিগত চেম্বার থেকে তাকেসহ তার অফিসের স্টাফদের আটক করে নিয়ে যায় পুলিশ। তাজুল ইসলামকে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেন জামায়াত নেতাদের আরেক আইনজীবী অ্যাডভোকেট শিশির মনির।

মতিঝিল জোনের সহকারি পুলিশ কমিশনার সাইফুর রহমান এ সম্পর্কে জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর নয়াপল্টন এলাকায় ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনায় কয়েকজনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়, যার মধ্যে অ্যাডভোকেট তাজুলও রয়েছেন। এ সময় তাজুল ইসলাম বাসায় যাচ্ছিলেন বলেও জানান তিনি।

জামায়াত নেতা কামারুজ্জামানের মৃত্যুদণ্ডের রায়ের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে রিভিউ আবেদন দায়ের করার পর আজ  সুপ্রিম কোর্ট বার অডিটোরিয়ামে এক সংবাদ সম্মেলনে মামলার বিষয়ে বক্তব্য দেন তাজুল ইসলাম। এছাড়া গতকাল ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে কামারুজ্জামানের সাথে দেখা কারার পর জেল গেটে রিভিউ আবেদনের বিষয়ে তিনি সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

Comments

comments