ব্রেকিং নিউজ

চীন-পাকিস্তানের মোকাবেলায় প্রতিরক্ষা সামথ্য বাড়াচ্ছে ভারত

flas (7)আন্তর্জাতিক ডেস্ক: প্রতিবেশী চীন ও পাকিস্তানকে মোকাবেলায় সেনাবাহিনীকে উন্নতকরণ ও সমরাস্ত্রের আধুনিকায়ন করছে ভারত। দেশটির গোলাবারুদের ঘাটতি পূরণসহ পুরনো অস্ত্রপাতি

বদলে নতুন ও আধুনিক অস্ত্রসজ্জিত হচ্ছে প্রতিরক্ষাব্যবস্থা। মঙ্গলবার এ তথ্য জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা দফতর পেন্টাগন। পেন্টাগনের সমরাস্ত্র সার্ভিস কমিটির এক বৈঠকে ‘আন্তর্জাতিক

সামরিক হুমকি বিষয়ক’ এক আলোচনায় ভারতের প্রতিরক্ষা সক্ষমতা তুলে ধরেন মার্কিন প্রতিরক্ষা গোয়েন্দা সংস্থার পরিচালক লেফটেন্যান্ট জেনারেল ভিনসেন্ট আর স্টিয়ার্ট।

তিনি বলেন, ‘ভারত বৃহৎ সামরিক আধুনিকায়নের সন্ধিক্ষণে অবস্থান করছে। দেশটির সেনা-নৌ-বিমান- এই তিন বাহিনীকেই আধুনিক অস্ত্রসজ্জিত করে চীন-পাকিস্তানের মোকাবেলায় সক্ষম।নতুন নতুন ক্ষেপনাস্র পরীক্ষা ও ওয়ারহেড বহনে সক্ষম দূরপাল্লার মিসাইল তৈরী ব্যাপক পরিকল্পনা হাতে নেওয়া হয়েছে। ভারত েইতিমধ্যে বেইজিং এ আঘাত হানতে সক্ষম ৫ হাজারকিমি পাল্লার ক্ষেপনাস্র পরীক্ষা সফল ভাবে উৎক্ষেপন করছে। 

ভারতীয় অস্ত্রসম্ভারে প্রাচীন যন্ত্রপাতি বদলে যোগ হচ্ছে নতুন আধুনিক সমরাস্ত্র।’খবর ইন্ডিয়া টুডের। স্টিয়ার্ট আরও জানান, তিন বাহিনীর চাহিদা পূরণে বাজেট বৃদ্ধি, ভারি ও

ঝামেলাপূর্ণ অস্ত্রের প্রতিস্থাপন এবং দেশীয় প্রতিরক্ষা শিল্পকে আরও উন্নত করা হচ্ছে। মার্কিন এই শীর্ষ গোয়েন্দা কর্মকর্তার মতে, ভারত-পাকিস্তানের সম্পর্ক ‘টান টান’ উত্তেজনার মধ্যে রয়েছে।

কাশ্মীর সীমান্তের নিয়ন্ত্রণরেখায় ২০০৩ সাল থেকে থেমে থেমে সংঘাত চলছে। এতে প্রায়শই নিহত হচ্ছে বেসামরিক মানুষ। অন্যদিকে চীনের সম্পর্কে বলা হয়, নয়াদিল্লি বেইজিং ‘নিয়ন্ত্রিত’ সামরিক সংঘাতে লিপ্ত।

অরুণাচল সীমান্তে বেইজিংয়ের সামরিক অবকাঠামো নির্মাণে উদ্বিগ্ন নয়াদিল্লি। এছাড়া দক্ষিণ এশিয়া ও ভারত মহাসাগরে চীনের আধিপত্য নিয়েও শঙ্কিত ভারত।

স্টিয়ার্টের মতে, কিছুদিন পর পর ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার মাধ্যমে ভারত তার শক্তির জানান দিচ্ছে। অচিরেই তারা বহু অস্ত্রবহনে সক্ষম ‘অগ্নি-৬’ পরীক্ষা চালাতে পারে। ভারতের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের

‘শক্তিশালী বন্ধন’ চীন-পাকিস্তানের সঙ্গে শত্র“তার বিনিময়ে নয় বলে জানিয়েছেন হোয়াইট হাউসের দক্ষিণ এশিয়াবিষয়ক সিনিয়র পরিচালক ফিল রেইনার। মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার

ভারত সফর নিয়ে বিদেশী গণমাধ্যমের সঙ্গে এক গোলটেবিল আলোচনায় মঙ্গলবার তিনি এ কথা বলেন। তিনি বলেন, ‘আমাদের লক্ষ্যে শুধু ভারতের সঙ্গে যৌথ মূল্যবোধের ভিত্তিতে সম্পর্কের

উন্নয়ন ঘটানো। এর মানে কোনো দেশকে প্রতিপক্ষ বানানো নয়। যুক্তরাষ্ট্রের তার কোনো প্রয়োজনও নেই।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমরা চাই একসঙ্গে কাজ করতে।’

ভারত কাশ্মীরের মানচিত্র বদলাতে চাচ্ছে : পাকিস্তান

ভারত জম্মু-কাশ্মীরের মানচিত্র বলে দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেছে পাকিস্তান। পাকিস্তানের পররাষ্ট্র সচিব আইজাজ চৌধুরী বলেন, ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের জনগণকে ইচ্ছাকৃতভাবে ‘অ-রাষ্ট্রীয় নাগরিক’ ট্যাগ দিয়ে এবং জনসংখ্যাকে নৃতাত্ত্বিক, ধর্মীয় ও সাম্প্রদায়িক রেখায় বিভক্ত করে নয়াদিল্লি মানচিত্র বদলানোর ষড়যন্ত্র করছে।

ইসলামী সহযোগিতা সংস্থার (ওআইসি) দেশগুলোর রাষ্ট্রদূতদের কাছে তিনি এসব কথা বলেন। কাশ্মীর দিবসের প্রাক্কালে পাক পররাষ্ট্র সচিব আরও বলেন, জাতিসংঘের পর্যবেক্ষণে কাশ্মীরে সুষ্ঠু

গণভোট অনুষ্ঠান ছাড়া সমস্যার সমাধান হবে না। এ অঞ্চলে শান্তির জন্য ভারতকে নির্বাচনে আসতে বাধ্য করতে হবে বলেও মত দেন তিনি। ডন।

Comments

comments