ব্রেকিং নিউজ

নোয়াখালী উৎসব স্থগিত

প্রতিবেদক :দেশে চলমান রাজনৈতিক অস্হিরতার কারণে আগামী ১৩ই ফেব্রুয়ারী অনুষ্টিতব্য  নোয়াখালি উৎসব স্হগিত  করা হয়েছে। ১৩ ফেব্রুয়ারীি ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ঢাকাস্হ নোয়াখালী বাসীর প্রাণের উৎসব ‘জেয়াফত অনুষ্টান’ হওয়ার কথা ছিল।

মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবে জরুরী মত বিনিময় সভায় দেশে বিদ্যমান রাজনৈতিক পরিস্হিতি নিয়ে ব্যাপক আলোচনা করেন উৎসব কমিটির নেতৃবিন্দু । সভায় সকলে দেশের  বতমান পরিস্হিতিতে ঘোষিত তারীখে অনুষ্টান না করার  ব্যপারে একমত পোষন করেন।

দেশের পরিস্হিতি স্বাভাবিক হলেই যে কোন সময় অনুষ্টান করা  হবে বলে জানানো হয়। নোয়াখালী উৎসব’র প্রধান পৃষ্ঠপোষক বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আনিসুল হক অনুষ্টান স্হগিতের ঘোষণা দেন। নোয়াখালী জেলা সমিতির সভাপতি মোহাম্মদ শাহাব উদ্দিনের সভাপতিত্ত্বে উক্ত অনুষ্ঠানে নোয়াখালীর বিশিষ্টজনরা উপস্থিত ছিলেন।

রাজনৈতিক পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে যে কোন সময় এই উৎসব অনুষ্ঠিত হবে বলে তারা জানান।
প্রসঙ্গত ১৩ ফেব্রুয়ারী সোহ্রাওয়ার্দী উদ্যানে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল এই নোয়াখালী উৎসব’র।

এরই মধ্যে বিক্রিও হয়ে গেছে ২৬ হাজার রেজিষ্ট্রেশন কার্ড।রেজিস্টেশন কাড কম থাকার কারণে অনেক ভিআইপি লোকজনও এই কার্ড সংগ্রহ করতে ব্যথ হয়। যার কারণে অনেকের মাঝে এই নিয়ে ছাপা অসন্তোষ বিরাজ করছিল।  অবশ্য আয়োজক কমিটির মতে, সবাইকে কার্ড দিতে গেলে লক্ষাধিক কার্ড প্রয়োজন বলে জানান। অনুষ্ঠানকে ঘিরে নোয়াখালীবাসীদের মাঝে এমন উৎসাহ উদ্দিপনা সৃষ্টি হবে তা আয়োজকদের অনেকেই তা ধারণা করতে পারেননি।

এ নিয়ে নোয়াখালী সমিতি’র সভাপতি জানান, আগামীতে রেজিষ্টেশন কার্ড বাড়ানোর পরিকল্পনা রয়েছে। এটা ঢাকাস্থ নোয়াখালীবাসীর অনুষ্ঠান, এই অনুষ্ঠানে নোয়াখালীবাসীরা একে অন্যের সাথে পরিচিত হবে, একটু আড্ডা দিবে, আনন্দ করবে। কিন্তু নোয়াখালীবাসীদের এই মিলনমেলা নিয়ে কেউ যাতে কোন রাজনীতি করতে না পারে সেজন্য তিনি সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

Comments

comments