ব্রেকিং নিউজ

ক্যানসার প্রতিরোধে করণীয় ?

1দ্য বিডি এক্সপ্রেসঃ ক্যান্সার নাম শুনলেই শিউরে উঠি আমরা। এমন এক রোগ যা শেষ করে দেয় সবকিছু। ক্যান্সার আক্রান্ত মানুষ শুধু শারীরিক ভাবেই শেষ হয়ে যান না, তার সঙ্গেই মানসিক ভাবে তলিয়ে যেতে থাকে তার পরিবার। চিকিত্‍সার বিপুল খরচের পরও প্রাণভিক্ষা দেয় না এই মারণ রোগ। প্রতিবছর ৪ ফেব্রুয়ারি পালন করা হয় ওয়ার্ল্ড ক্যান্সার ডে।

ক্যান্সার মারণরোগ হলেও চিকিত্‍সকরা বলেন জীবনযাত্রার পরিবর্তন, প্রাথমিক পর্যায়ে ক্যান্সার ধরা পড়লে ও শুরু থেকেই চিকিত্‍সা করলে সেরে যেতে পারে ক্যান্সারও। চিকিত্‍সকদের মতে ক্যান্সারের চিকিত্‍সা শুরু হতে যত দেরি হবে, পরিস্থিতি ততই হাতের বাইরে চলে যাবে। কিছু নিয়ম মেনে চললে হয়তো দূরে রাখা যায় ক্যান্সার।

স্বাস্থ্যসম্মত খাওয়া দাওয়া-আমাদের প্রতিদিনের খাদ্যতালিকার ওপর নির্ভর করে আমাদের ভাল থাকা। প্রতিদিনের ডায়েটে ফল, সবজি, শস্য থাকলে ক্যান্সারের ঝুঁকি কমতে পারে। সেইসঙ্গেই কমাতে হবে চর্বি জাতীয়, বিশেষ করে আমিষ চর্বিজাতীয় খাবারের পরিমান। খাসির মাংস ও খাবারে নুনের পরিমান কম রাখলে কমতে পারে ক্যান্সারের সম্ভাবনা।

তামাক এড়িয়ে চলুন-যে কোনও প্রক্রিয়ায় তামাক সেবন শরীরের পক্ষে ক্ষতিকারক। যে কোনও পরিমানে তামাক সেবনই বাড়িয়ে তোলে ক্যান্সারের সম্ভাবনা। ধুমপানের ফলে বাড়ে ফুসফুস, ব্লাডার, সার্ভিক্স ও কিডনির ক্যান্সারের সম্ভাবনা। তেমনই তামাক চিবিয়ে খাওয়ার ফলে মুখের ভেতর ও অগ্ন্যাশয়ের ক্যান্সারে আক্রান্ত হতে পারেন আপনি।

শরীরচর্চা-প্রতিদিন অন্তত ৩০ মিনিট শরীরচর্চা করলে শরীরের সঠিক ওজন বজায় থাকে। ফলে ব্রেস্ট, কোলন, ফুসফুস, প্রস্টেট, কিডনির ক্যান্সারের ঝুঁকি কমানো যায়।

রোদ থেকে দূরে-রোদ বেরোল চেষ্টা করুন SPF 15 বা তার থেকেও বেশি সক্রিয় সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে। অনেক্ষণ রোদে থাকলে ত্বকের ক্যান্সারের সম্ভাবনা বাড়ে। এই ক্যান্সারেই বিশ্বে সবথেকে বেশি মানুষ আক্রান্ত হন। শুধু সানস্ক্রিন নয়, রোদে বেরোলে যতটা সম্ভব ঢাকা জামাকাপড় পরলে বা ওড়না দিয়ে শরীরের খোলা অংশ ঢেকে রাখলে এড়ানো যায় ক্যান্সার।

নিয়মিত চেক আপ-নিয়মিত চেক আপ করলে জানা যায় সার্ভিকাল, কোলরেক্টাল বা ব্রেস্ট ক্যান্সারের সম্ভাবনা। হিউম্যান প্যাপিলোমাভাইরাস বা হেপাটাইটিস বি-র মতো ভ্যাক্সিনও রুখতে পারে ক্যান্সারের সম্ভাবনা।

Comments

comments