মিরপুরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ শিবির কর্মী নিহত

প্রতিবেদকঃ রাজধানীর মিরপুরের রূপনগরে পুলিশের সঙ্গে 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত হয়েছেন এমদাদ উল্লাহ (১৮) নামের এক শিবির কর্মী। রবিবার সকালে পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ মর্গে পাঠিয়েছে।

 নিহত যুবক এমদাদ উল্লাহর বাড়ি জামালপুরে। থাকতেন মিরপুর-৬ এর ২ নম্বর সড়কের এক নম্বর বাড়িতে। তিনি শিবিরের কর্মী হিসেবে চলমান অবরোধ ও হরতালে সহিংসতায় জড়িত ছিলেন।

রুপনগর থানার এসআই আজিজুল জানান, শনিবার রাত ১০টার দিকে তাকে বাসার সামনে থেকে আরও কয়েকজনসহ গ্রেফতারের পর রাত ১১টার দিকে তার দেওয়া তথ্য অনুযায়ী অন্য সহযোগীদের গ্রেফতারে রূপনগরের বেড়িবাঁধ এলাকায় এনা প্রপার্টিজের সামনে অভিযান চালায় পুলিশ। সেখানে অভিযানে গেলে দুর্বৃত্তরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। এ সময় এমদাদ উল্লাহর শরীরে গুলি লাগলে তিনি মারা যান। একইসঙ্গে আহত হন পুলিশের দুই সদস্য। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

ছাত্র শিবিরের পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, অনার্স প্রথম বর্ষের ছাত্র এমদাদ উল্লাহকে শনিবার সন্ধ্যা সাতটার দিকে বাসার সামনে থেকে ধরে নিয়ে যায় পুলিশ। পরে তাকে নিয়ে বিভিন্ন মেসে অভিযান চালিয়ে আরও নয় শিবির নেতা-কর্মীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে 'বন্দুকযুদ্ধে'র নামে তাকে হত্যা করা হয়।

Comments

comments