ব্রেকিং নিউজ

রাজশাহীতে দুই বাসে আগুন, দগ্ধ ১০

raj-thereport24প্রতিবেদকঃ জেলার তানোর উপজেলা ও পবা থানায় যাত্রীবাহী দুটি বাসে ভাঙচুর শেষে পেট্রোলবোমা মেরে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এতে চালক ও যাত্রীসহ অন্তত ১০ জন দগ্ধ হন।

তানোরে শুক্রবার রাত সাড়ে ৭টার দিকে এবং পবা থানায় সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে ওই ঘটনা ঘটে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুর্বৃত্তরা তানোর উপজেলার ব্র্যাক অফিসের সামনে যাত্রীবাহী বাসটিতে প্রথমে ভাঙচুর চালায়। পরে তারা পেট্রোলবোমা নিক্ষেপ তাতে আগুন ধরিয়ে দেয়।

এতে চালক, হেলপার ও এক শিশুসহ ১০ যাত্রী দগ্ধ হন। তাদের উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। রাজশাহীর তানোর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন জানান, তানোর থেকে ছেড়ে যাওয়া যাত্রীবাহী বাসটি উপজেলার ব্র্যাক অফিসের সামনে পৌঁছালে দুর্বৃত্তরা ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে ভাঙচুর করে।

এরপর একটি পেট্রোলবোমা মেরে বাসে আগুন ধরিয়ে দেয়। এ সময় বাসের চালক, হেলপার ও এক শিশুসহ ১০ জন দগ্ধ হন। তিনি আরও জানান, আহতদের উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। পরে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

তাৎক্ষণিকভাবে আহতদের পরিচয় জানা যায়নি। এর আগে, রাজশাহীর পবা উপজেলার তেঘড় এলাকায় শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে আরেকটি যাত্রীবাহী বাসে ভাঙচুর চালানো শেষে পেট্রোলবোমা মেরে আগুন ধরিয়ে দেয় দুর্বৃত্তরা।

তানোর উপজেলা ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার গোলাম মোস্তফা জানান, সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে তানোর থেকে রাজশাহীগামী যাত্রীবাহী একটি বাস (যশোর-ব-৭৮৩) পবা উপজেলার তেঘড় এলাকায় পৌঁছালে দুর্বৃত্তরা ইটপাটকেল ছুড়ে গাড়ির সামনের কাঁচ ভাঙচুর করে। এতে চালক আতঙ্কিত হয়ে বাসটি থামিয়ে দিলে যাত্রীরা হুড়োহুড়ি করে নেমে পড়েন।

পরে দুর্বৃত্তরা বাসটিতে পেট্রোলবোমা মেরে আগুন ধরিয়ে দেয়। তিনি আরও জানান, খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। এ ঘটনায় তাড়াহুড়া করে বাস থেকে নামতে গিয়ে কয়েক যাত্রী সামান্য আহত হন।

Comments

comments