ব্রেকিং নিউজ

সরকার জনগণের কথা শোনার ক্ষমতা হারিয়েছে : ড. কামাল হোসেন

fd69929725b4be1625d0b4e5648f766d_XL২ জানুয়ারি: বাংলাদেশের জনবিচ্ছিন্ন সরকার জনগণের কথা শোনার ক্ষমতা হারিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিশিষ্ট আইনজীবী ড. কামাল হোসেন। তিনি বলেন, যারা রাষ্ট্র পরিচালনা করছে তারা জনবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। নাগরিকদের কথার কোনো মূল্য তাদের কাছে নেই। জনগণের কথা শোনার ক্ষমতা তারা হারিয়ে ফেলেছে।

আজ (শুক্রবার) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে ৪৩তম বিজয় দিবস এবং বাংলাদেশের মানবাধিকার পরিস্থিতি শীর্ষক এ আলোচনা সভার আয়োজন করে বাংলাদেশ মানবাধিকার পর্যবেক্ষণ পরিষদ।

ড. কামাল বলেন, সরকার মনে করছে তারা আজীবন ক্ষমতায় থাকবে। আর কেউ যদি মনে করে আজীবন ক্ষমতায় থাকবে তবে তারা পাগলের স্বর্গে বসবাস করছে। চলমান রাজনৈতিক সংকট সমাধানে অবিলম্বে আলোচনায় বসার আহবানও জানান তিনি।

এ সময়, সংবিধান লঙ্ঘনের অভিযোগে সরকারের বিরুদ্ধে দায়ের করা প্রতিটি মামলার শুনানিতে হাইকোর্টে যাওয়ার ঘোষণা দেন ড. কামাল হোসেন। তিনি আরও বলেন, সংবিধান লঙ্ঘনের অধিকার কারো নেই। যাদের কারণে রাষ্ট্র মানবতাবোধ হারিয়েছে তাদের ক্ষমতায় থাকার কোনো অধিকার নেই। ২০১৫ সাল হবে জনগণের বিজয়ের বছর।

প্রধান বিচারপতির উদ্দেশ্যে ড. কামাল বলেন, সরকারের বিরুদ্ধে আদেশ চেয়ে যদি না পাই তাহলে দেশের স্বাধীনতা অর্থহীন হবে। বর্তমানে রাষ্ট্র মানবতাবোধ হারিয়েছে। মানবাধিকার হারিয়ে ফেললে স্বাধীনতা অর্থহীন হয়ে যাবে। সরকারকে দেশের ১৬ কোটি মানুষের কথা শুনতে হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

অনুষ্ঠানে, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, রাষ্ট্র হয়ে গেছে অমানবিক। মানুষ থাকলেই তো মানবাধিকার থাকবে। শাহজাহানপুরে শিশু জিহাদ উদ্ধারে সরকারের ভূমিকার সমালোচনাও করেন তিনি।

Comments

comments