ব্রেকিং নিউজ

আফগানিস্তানে যুক্তরাষ্ট্র, নেটোর আনুষ্ঠানিক ভাবে যুদ্ধের সমাপ্তি ঘোষনা

077ECBA5-CBF8-44FA-B364-03EC4686A50A_w268_r1দি বিডি এস্কপ্রেসঃ ২৯, ডিসেম্বর যুক্তরাষ্ট্র ও নেট্যো আনুষ্ঠানিক ভাবে রবিবার আফগানিস্তানে তাদের যুদ্ধের অবসান ঘটালো। কিন্তু ১৩ বছর ধরে তারা তালেবানদের বিরুদ্বে যুদ্ধের নামে নিরপরাধ কয়েক লক্ষ সাধারণ আপগানদের কে হত্যা করে। আল কায়েদা দমনের নাম করে যুক্তরাষ্ট ও  নেট্যো বাহিনি আপগানিস্হানও পাকিস্হান সহ পুরো দক্ষিন এশিয়ায় সন্তাসবাদের বিস্তার ঘটায়।

আলকায়েদা ও তালেবান দমনের অজুহাতে যুক্তরাষ্ট আপগানিস্হানে সামরিক হস্তক্ষেপ করে দখল করে নেয়। দীঘ এক দশক ব্যাপি আলকায়েদা ও সন্তাসি দমনের পরিবতে ইরান,পাকিস্হান, আফগানিস্হান,সন্তাসিদেরকে দিয়ে প্রস্কি ওয়ার শুরু করে। সি আই এ, ইসরাইলি গোয়েন্ধা সংস্হা ‘মোসাদ‘ ভারতীয় গোয়েন্দা সংস্হা ‘র‘ মিলে ইরান, পাকিস্হান, আফগানিসহানকে টুকরো টুকরো করার কৌশল গ্রহণ করে। কিন্তু ইরান ও পাকিস্হানের সেনাবাহিনী তিন অক্ষশক্তির গোপন অভিপ্রায় বুঝে গেলে কৌশল পাল্টিয়ে যুদ্ধের সমাপ্তি ঘোষনা করে।   বিদ্রোহের বিরুদ্ধে লড়লো, তা এখনও আফগান সরকারের শত্রু হয়ে থাকলো।

যুক্তরাষ্ট্র ও পশ্চিমা সামরিক জোট কাবুলে তাদের সামরিক সদর কার্যালয়ে এক অনুষ্ঠানের নাধ্যমে তাদের সরাসরি যুদ্ধ তৎপরতা শেষ করে। কিন্তু তারা ১৩ হাজার ৫০০ সেনা সে দেশে রাখার পরিকল্পনা করেছে। ওই সেনারা আফগান সরকারি বাহিনীকে প্রশিক্ষন ও পরামর্শ দেওয়ায় সাহায্য করবে। যে পশ্চিমা সেনারা সেখানে থেকে যাবে তাদের মধ্যে ১১ হাজার হচ্ছে আমেরিকান। আফগান সরকারি বাহিনী নব বর্ষে যুদ্ধ ও নিরাপত্তা জনিত তৎপরতার নিয়ন্ত্রন হাতে নেবে।

আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা সহায়তা বাহিনীর কম্যান্ডার যুক্তরাষ্ট্রের সেনা বাহিনীর General John Campbell বলেছেন যুক্তরাষ্ট্র ও নেটো কাবুল পরিত্যাগ করছে না।

 

Comments

comments