ব্রেকিং নিউজ

বিএনপির সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপনের চেষ্টায় জাতিয় পার্টি

download_13297_0মধ্যবর্তী নির্বাচনের সম্ভাবনা মাথায় রেখে নতুন করে বিএনপির সঙ্গে যোগাযোগ শুরু করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। ছোটভাই জিএম কাদেরকে দিয়ে তিনি দলটির শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে সুসম্পর্ক তৈরি করতে চান। মঞ্জুর হত্যা মামলা ঝুলে যাওয়া, প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত হিসেবে মূল্যায়ন না করাসহ সরকারের কাছে আস্থা ও গুরুত্বহীন হওয়ায় ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে তিনি এখন বিএনপির দিকেই ঝুঁকছেন বলে তার ঘনিষ্ঠসূত্র জানিয়েছে। জানা গেছে, বিএনপির সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপনের চেষ্টার অংশ হিসেবে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এরশাদ গত রবিবার পাঁচ দিনের সফরে মালয়েশিয়া গেছেন। তার সফরসঙ্গী হিসেবে আছেন প্রেসিডিয়াম সদস্য তাজ রহমান ও জিএম কাদেরের ঘনিষ্ঠ মেজর অব. খালেদ আখতার। সেখানে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের প্রতিনিধি প্রবাসী নেতাদের সঙ্গে গোপনে তার দেখা-সাক্ষাতের কথা শোনা যাচ্ছে। বিএনপি নেতাদের সঙ্গে বৈঠক হওয়ার সম্ভাবনা আছে বলেই দলের মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলুকে এ সফর কর্মসূচিতে রাখা হয়নি। কী কারণে তিনি হুট করে মালয়েশিয়া গেছেন দলের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতেও তা জানানো হয়নি। আগামী ২৮ নভেম্বর এরশাদ দেশে ফেরার কথা রয়েছে। দলটির ঘনিষ্ঠ সূত্র জানায়, এরশাদের বিএনপি কানেকশনের মিশনে জিএম কাদেরের সঙ্গে ফ্রন্টলাইনে কাজ করছেন তার বিশেষ উপদেষ্টা ববি হাজ্জাজ। মিশনের অংশ হিসেবে তারেকের সঙ্গে কিংবা তার প্রতিনিধিদের সঙ্গে দেখা-সাক্ষাত্ করতে তিনদিন আগে লণ্ডনে পাড়ি জমিয়েছেন তিনি। ববির মিশন সফল হলে সেখান থেকেই ববি হাজ্জাজ মালয়েশিয়ায় এরশাদের সঙ্গে তারেকের প্রতিনিধিদের যোগাযোগ করিয়ে দেবেন বলে একটি সূত্র জানিয়েছে। ওই সূত্র জানায়, এইচএম এরশাদ সভা-সমাবেশে বিএনপির চরম বিরোধিতা করে এলেও আগামীতে রোষানল থেকে বাঁচতে সম্পর্ক স্থাপনে আগ্রহী। যাতে সময়-সুযোগে এই সরকারের অবমূল্যায়নের প্রতিশোধ নিতে পারেন। এজন্য তিনি অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গে গোপনে জিএম কাদের ও ববি হাজ্জাজকে দিয়ে বিএনপির সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

Comments

comments