ব্রেকিং নিউজ

জিয়া নষ্ট রাজনীতির জনক: ইনু

004_97016_020141108124353প্রতিবেদকঃ  বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা মেজর জিয়াউর রহমানকে নষ্ট রাজনীতির জনক বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। তিনি বলেন, ১৫ আগস্টের পর দেশে নেতৃত্ব শূন্যতা বিরাজ করছিল। ১৯৭৫ সালের ৭ নভেম্বর সামরিক শাসন থেকে দেশকে বাঁচাতে সিপাহীরা কর্নেল তাহেরের কাছে যায়। তিনি সিপাহীদের শান্তিপূর্ণ বিদ্রোহ করার পরামর্শ দেন। কিন্তু সেই বিদ্রোহের মাধ্যমে জিয়াউর রহমানকে মুক্ত করা হলেও জিয়া তাহেরকে খুন করে। শনিবার বিকেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি সড়কদ্বীপে কর্নেল তাহের সংসদ আয়োজিত ফিরে দেখা সাত নভেম্বর শীর্ষক এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। কর্নেল তাহের সংসদের সভাপতি হায়দার আকবর খান রনোর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আলোচনায় অংশ নেন সংসদের সহসভাপতি ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক আনোয়ার হোসেন, ঢাবি অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক এম এম আকাশ, ডাকসুর সাবেক জিএস ডা. মোশতাক হোসেন। তথ্যমন্ত্রী ইনু বলেন, অভ্যুত্থানের পর জিয়া দেশে পুনরায় সামরিক শাসন জারি করে রাষ্ট্রক্ষমতা গ্রহণ করে। মুক্তিযুদ্ধবিরোধী নষ্ট রাজনীতি শুরু করে। ক্যান্টনমেন্টকে কসাই খানায় পরিণত করে। বিদ্রোহী সৈনিকদের হত্যা করে খলনায়কে পরিণত হয় জিয়াউর রহমান। তিনি বলেন, ৭ নভেম্বর ছিল কথিত বিপ্লব। প্রকৃতপক্ষে এই দিন সিপাহী জনতার অভ্যুত্থান হয়েছিল। এর মাধ্যমে দেশে গণতান্ত্রিক সমাজ প্রতিষ্ঠার প্রচেষ্টা করা হয়। ক্যান্টনমেন্টকে কসাইখানায় পরিণত করা ও সামরিক শাসকের বেড়াজাল থেকে দেশকে মুক্ত করার জন্যই এদিন সিপাহীরা বিদ্রোহ করে। তিনি বলেন, ১৫ আগস্টের প্রথম প্রতিরোধ ছিল সাত নভেম্বর। এখন আমরা অনেকে এই দিনটির ভুল ব্যাখা দিই। এই দিনের সঠিক ইতিহাস জানতে হবে। আগামী সাত নভেম্বর পর পর্যন্ত বেঁচে থাকলে এই দিবসের ইতিহাস লিখিত আকারে প্রকাশ করবো। জাসদ সভাপতি ইনু বলেন, আওয়ামীপন্থী অনেক রাজনীতিবিদ সাবেক সেনাপ্রধান খালেদ মোশাররফের গুণগায়। কিন্তু খালেদ মোশাররফই বঙ্গবন্ধুর খুনীদের দেশ থেকে পালিয়ে যেতে সহযোগিতা করেছিল। তার উদাসীনতার কারণেই জাতীয় চার নেতা হত্যার ঘটনা ঘটে। একে খন্দকারের বই লেখা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমাদের মুক্তিযুদ্ধ ছিল একটি বিশাল হাতি। আর একে খন্দকার হচ্ছে মুক্তিযুদ্ধের একটি পিপড়া মাত্র। পিপড়া যখন হাতির বর্ণনা দিবেন তখন ভুল করবেই। তাই মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস লেখার ক্ষেত্রে সবাইকে সতর্ক হতে হবে।

Comments

comments