বান্দরবানের বন্যহাতির আক্রমণে বিজিবি সদস্যের মৃত্যু

বান্দরবান প্রতিনিধি
বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার সদর ইউনিয়নে অভিযানকালে বন্য হাতির আক্রমণে বিজিবি’র এক সদস্য নিহত হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার রাত পৌনে ১১টার দিকে সীমান্তের ৪৮-৪৯ পিলারের মাঝামাঝি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় তৌহিদুল ইসলাম নামের এক সৈনিক আহত হয়েছে। বান্দরবান পুলিশ সুপার তারিকুল ইসলাম এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

নিহত বিজিবি’র সদস্যের নাম আবদুল মান্নান (৫২)। তিনি নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ইউনিয়নের ভালুকখাইয়া সীমান্ত চৌকিতে নায়েব সুবেদার পদে কর্মরত ছিলেন। তার বাড়ি কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে। 

জানা যায়,  মঙ্গলবার রাতে বিজিবির একটি টহল দল সদর ইউনিয়নের ভাল্লুক খাইয়ার ৪৮-৪৯ সীমান্ত পিলার এলাকায় টহলে যায়। এ সময় জঙ্গল থেকে একটি বন্য হাতি ওই টহল দলের ওপর হঠাৎ বন্য হাতির পাল আক্রমণ করে। সে সময় অন্ধকারে বিজিবির সদস্যরা এদিক ওদিক ছোটাছুটি করে আত্মরক্ষার চেষ্টা করে। এক পর্যায়ে আবদুল মান্নানকে একটি হাতি ধরে ফেলে। হাতিটি তাকে পা দিয়ে আঘাত করে এবং পরে শুঁড় দিয়ে পেঁচিয়ে আছড়ে ফেলে দেয়। পরে বিজিবি ও নাইক্ষ্যংছড়ি থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আবদুল মান্নানের মরদেহ উদ্ধার করে। 

বিজিবির সঙ্গে রাতে উদ্ধার কাজে যাওয়া এসআই ফকরুল ইসলাম বলেন, ঘটনাস্থল অত্যন্ত দুর্গম হওয়ায় দিবাগত রাত পৌনে একটার দিকে আবদুল মান্নানের লাশ উদ্ধার করা হয়। ঘটনা জানার পর বিজিবির কক্সবাজার সেক্টরের অধিনায়কসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে গিয়েছিলেন। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ সুপার তারিকুল ইসলাম বলেন, বিজিবির নায়েব সুবেদার আবদুল মান্নান হাতির আক্রমণে মারা গেছেন। হাতিকে গুলি করার কোনো বিধান নেই। তিনি সেই বিধান মেনেই মৃত্যুকে বরণ করে নিয়েছেন।

Comments

comments