ব্রেকিং নিউজ

কাকরাইল করোনার নতুন হটস্পট, আক্রান্ত ১৩৫

প্রতিবেদক:

করোনাভাইরাসজনিত কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরো পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে এ রোগে আক্রান্ত হয়ে ১৬৮ জনের মৃত্যু হলো। এ ছাড়া নতুন করে আরো ৫৬৪ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। এ নিয়ে মোট সাত হাজার ৬৬৭ জন করোনায় আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে।
এর মধ্যে রাজধানী ঢাকায় এই পর্যন্ত সর্বাধিক ৩ হাজার ৭৫১ জন রোগী শনাক্ত হয়েছে। যা দেশের ৫৪.৪৯ ভাগ রোগী। এর মধ্যে রাজধানী ঢাকায় মোট ৮৯ জন মৃত্যুবরণ করেছে। এ ছাড়া রাজধানীতে গত ২৪ ঘণ্টায় ৩২৮ জন শনাক্ত হয়েছে। রাজধানীতে করোনার নতুন হটস্পট চিহ্নিত হয়েছে কাকরাইল। এই এলাকায় এই পর্যন্ত ১৩৫ জন শনাক্ত হয়েছে। এর আগের দিন করোনায় আক্রান্ত ছিল ৭৪ জন, যা একদিনে বেড়েছে ৬১ জনে।

আজ বৃহস্পতিবার সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইডিসিআর) ওয়েবসাইট থেকে  এ তথ্য জানা গেছে। 

ঢাকায় সর্বাধিক আক্রান্ত এলাকা :

রাজারবাগে ১৩৮ জন, কাকরাইলে ১৩৫ জন, যাত্রাবাড়ীতে ৯১ জন, লালবাগে ৭৭ জন, মোহাম্মদপুরে ৬৮ জন,  মহাখালীতে ৬৪ জন, মুগদায় ৬২ জন, উত্তরায় ৫৯ জন, বংশালে ৫৪ জন, শাহাবাগে ৫০ জন, মালিবাগে ৪৯ জন, গেন্ডারিয়ায় ৪২ জন, ওয়ারীতে ৪১ জন, মগবাজার ও বাড্ডায় ৪০ জন করে, হাজারীবাগে ৩৬ জন ও ধানমণ্ডিতে ৩৭ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে।

রাজধানীর আব্দুল্লাহপুরে একজন, আদাবরে সাতজন, আমিনবাজারে দুজন, আমলাপাড়ায় দুজন, আগারগাঁওয়ে ১২ জন, আরমানিটোলায় দুজন, আশকোনায় একজন, আজিমপুরে ১৯ জন, বাবুবাজারে ২৯ জন, বাড্ডায় ৪০ জন, বেইলি রোডে চারজন, বনানীতে ১০ জন, বাংলামোটরে তিনজন, বানিয়ানগরে একজন, বাসাবোতে ৩৩ জন, বসুন্ধরায় ১৩ জন, বেগুনবাড়িতে দুজন, বেগমবাজারে একজন, বেড়িবাঁধে একজন, বারিধারায় সাতজন, বসিলাতে একজন, বুয়েট এলাকায় একজন ও বকশিবাজারে পাঁচজন আক্রান্ত হয়েছে।

ক্যান্টনমেন্টে আটজন, দক্ষিণখানে একজন, ধানমণ্ডির সেন্ট্রাল রোডে দুজন, এলিফ্যান্ট রোডে ১০ জন, চাঁনখারপুলে ৩১ জন, ধনিয়ায় একজন, চকবাজারে ৩২ জন, ফরিদাবাদে একজন,  ঢাকেশ্বরীতে একজন, ডেমরায় ১০ জন, ধানমণ্ডিতে ৩৭ জন, ধোলাইখালে দুজন, দয়াগঞ্জে দুজন, ধলপুরে দুজন, ইস্কাটনে ১০ জন, ফার্মগেটে ১৮ জন, ফকিরাপুলে দুজন।

গোলারটেকে একজন, গোরানে তিনজন, গণকটুলিতে তিনজন, গ্রিনরোডে ১২ জন, গোপীবাগে ১৯ জন, গুলিস্তানে সাতজন, গুলশানে ২৭ জন, হাতিরঝিলে তিনজন, হাতিরপুলে তিনজন, হাজারিবাগে ৩৬ জন, ইব্রাহিমপুরে দুইজন, ইসলামপুরে দুজন, জেলগেটে দুইজন ও যাত্রাবাড়ীতে ৯১ জন অাক্রান্ত হয়েছে।

ঝিগাতলায় সাতজন, জুরাইনে ২৭ জন, কল্যাণপুরে ছয়জন, কাঁঠালবাগানে একজন, কচুক্ষেতে একজন, কামরাঙ্গীরচরে ২৩ জন, কলাবাগানে সাতজন, কদমতলীতে ছয়জন, কমলাপুরে দুইজন, কুড়িলে  দুইজন, কাজীপাড়ায় ১০ জন, কারওয়ানবাজারে ১০ জন, কুতুবখালীতে ছয়জন ও কলতাবাজারে একজন অাক্রান্ত হয়েছে।

খিলগাঁয়ে ২৬ জন, খিলক্ষেতে তিনজন, কোতোয়ালিতে ১১ জন, কুড়িলে দুইজন, লক্ষ্মীবাজারে ১০ জন, মাদারটেকে দুইজন, মালিটোলায় চারজন, মান্ডায় ১০ জন, মানিকনগরে চারজন, মাটিকাটায় চারজন, মান্ডায় ১০ জন, মানিকনগরে চারজন, মানিকদীতে একজন, মাতুয়াইলে পাঁচজন, মেরাদিয়ায় দুইজন, মীর হাজারীবাগে পাঁচজন, মিরপুর ১ নম্বরে ৩১ জন, মিরপুর ২ নম্বরে দুইজন, মিরপুর ৬ নম্বরে ৬ জন, মিরপুর ১১ নম্বরে ৩১ জন, মিরপুর ১৩ নম্বরে তিনজন, মিরপুর ১২ নম্বরে ১৮ জন, মিরপুর ১৪ নম্বরে ৩৭ জন, মিটফোর্ডে ৩৮ জন, মোহনপুরে একজন, মনিপুরে একজন, মোহনপুরে  একজন, মতিঝিলে দুজন ও মুগদায় ৬২ জন অাক্রান্ত হয়েছে।

নওয়াবপুরে একজন, নবাবগঞ্জে চারজন, নারিন্দায় ১১ জন, নাজিরাবাজারে ৯ জন, নাখালপাড়ায় নয়জন, নায়েববাজারে সাতজন, নিকুঞ্জতে একজন, নীলক্ষেতে তিনজন, নয়াবাজারে সাতজন, নীমতলিতে চারজন, পীরেরবাগে তিনজন, পোস্তাগলায় পাঁচজন, পল্টনে ২৯ জন, পুরানা পল্টনে ২৭ জন, রসুলপুরে  একজন, রুপগঞ্জে একজন, পুরানা পল্টনে ২৭ জ, পোস্তাগলায় তিনজন, পল্লবীতে দুইজন, রামপুরায় ২২ জন ও রমনায় ১২ জন অাক্রান্ত হয়েছে।

 সূত্রাপুরে ১৮  জন, শনির আখড়ায় ১২ জন, তেজগাঁওয়ে ৫০ জন, তেজতুরিবাজারে চারজন, টোলারবাগে ১৯ জন, উর্দু রোডে একজন ও ভাটারায় একজন ও ওয়ারীতে ৪১  জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা হয়েছে।

Comments

comments