করোনাভাইরাসে আক্রান্ত যুক্তরাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: 

বিশ্বব্যাপী মরণঘাতী করোনাভাইরাস (কভিড-১৯) আতঙ্কের মধ্যেই যুক্তরাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাদিন ডরিয়েস জানালেন, তিনিও শরীরে এই ভাইরাস বহন করছেন। তিনি যুক্তরাজ্যের প্রথম কোনো এমপি, যিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলেন।

কনজারভেটিভ এমপি নাদিন ডরিয়েস গতকাল মঙ্গলবার জানান, করোনাভাইরাস ধরা পড়ার পর তিনি সব ধরনের পূর্বসতর্কতামূলক ডাক্তারি পরামর্শ মেনে চলছেন এবং নিজে থেকেই বাসায় বিচ্ছিন্ন অবস্থায় (সেলফ কোয়ারেন্টাইন) আছেন।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, করোনাভাইরাসে যুক্তরাজ্যে এখন পর্যন্ত ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে। দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৩৮২ জন। এমন পরিস্থিতিতে দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রীর নিজের করোনাভাইরাসের ঘোষণা দিলেন।  

কীভাবে নাদিন ডরিয়েস করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলেন, তা জানার চেষ্টা করছে যুক্তরাজ্যের স্বাস্থ্য বিভাগ। একই সঙ্গে মন্ত্রীর সঙ্গে কারা দেখা করেছে সেটাও জানার চেষ্টা করা হচ্ছে।

দ্য টাইমস’র প্রতিবেদনে বলা হয়, যুক্তরাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাদিন ডরিয়েস আক্রান্তের পর অন্তত ১০০ লোকের সংস্পর্শে এসেছেন। তাদের মধ্যে দেশটির প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনও রয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে পরীক্ষা করা হয়েছে কি না বা কখন পরীক্ষা করা হবে, সে সম্পর্কে কোনো মন্তব্য করেনি ব্রিটিশ সরকারপ্রধানের সদর দপ্তর ১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিট।

যুক্তরাজ্যের জাতীয় স্বাস্থ্যসেবা কর্তৃপক্ষ জানায়, ভাইরাস আক্রান্ত পরীক্ষা করার সক্ষমতা বাড়িয়ে চলছে তারা। দিনে ১০ হাজার লোককে পরীক্ষা করতে পারবেন তারা। এখন সেখানে দিনে দেড় হাজার লোককে পরীক্ষা করা হচ্ছে।

বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। এখন পর্যন্ত ১ লাখ ১৬ হাজার ৬০০ জন এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। মারা গেছে ৪ হাজার ২৫৮ জন। অপরদিকে করোনায় আক্রান্ত ৬৪ হাজার ২১৪ জন চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছে।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ে। বর্তমানে দেশটিতে করোনা প্রাদুর্ভাব কমে আসলেও বিশ্বের অন্যান্য দেশে ছড়িয়ে পড়ছে।

Comments

comments