ব্রেকিং নিউজ

আমাকে দেশত্যাগে বাধ্য করা হয় : সিনহা

দ্য বিডি এক্সপ্রেস :

সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা তার একটি আত্মজীবনি বই প্রকাশ করেছেন। যেখানে তিনি দাবি করেছেন সরকারের চাপ এবং হুমকির মুখে দেশ ত্যাগ করতে বাধ্য করা হয়েছে তাকে। বিচারপতি সিনহার বই ‘অ্যা ব্রোকেন ড্রিম: রুল অব ল, হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড ডেমোক্রেসি’ মাত্রই প্রকাশিত হয়েছে। এবং এই বইটি এখন অ্যামাজনে কিনতে পাওয়া যাচ্ছে। এই বইয়ে বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা সবিস্তারে প্রকাশ করেছেন কোন পরিস্থিতিতে সরকারের সাথে তার বিরোধ তৈরি হয়েছিল। এবং কি কারণে তাকে দেশ ত্যাগ করতে হয়েছিল।

বইয়ে সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা লিখেন, আমাকে যখন গ্রেফতার করে তখন আমি নিঃশ্বাস নিতে পারছিলাম না। রাতের বেলা কিছু লোক এসে বলে, আপনাকে বলা হল আপনি বিদেশে চলে যান। আপনি কেনো যাচ্ছেন না? তখন আমি বলি কেনো যাবো আমি বিদেশ? তখন ওরা বলে আপনি বিদেশ চলে যান আপনার টাকা-পয়সার আমরা ব্যবস্থা করছি। তখন আমি বলি আমি আপনাদের টাকা নেবো কেনো, আর আপনাদের কথায় কি আমি বিদেশ যাবো? আমি চাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে কথা বলতে। কেনো আমাকে বিদেশ যেতে হবে আমি সেটা জানতে চাই। তখন তারা বলে প্রধানমন্ত্রী আপনার সাথে কথা বলবে না।
বিচারপতি সিনহা চাইছে বাংলাদেশের সংবিধানে ষোড়শ সংশোধনি বাতিলের রায়টি যেনো সরকারের পক্ষে যায়। যেজন্য তাকে সরকারের সর্বোচ্চ মহল থেকে চাপ তৈরি করা হয়েছিল। বিচারপতি সিনহা আরো লিখেন, আমাদের চারজন বিচারক তারা বললেন আমার সাথে কথা বলতে বসবেন না। কারণ রাষ্ট্রপতি নাকি তাদের ডেকে বলেছেন আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ আছে। আমার রাষ্ট্রপতির সাথে সেদিনও দেখা হয়েছে, তার সাথে বসে কথা হয়েছে। কিন্তু তিনি আমাকে কিছু বলেনি । তার যদি কোনো অভিযোগ থেকেই থাকে তাহলে তো তখনেই বলার কথা। আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ অথচ আমাকে না বলে অন্যদের বলার মানে কি? আর এসব অভিযোগগুলোই তার লেখা এই বইটিতে প্রকাশ পেয়েছে।

Comments

comments