নির্বাচনে প্রার্থীর ইমেজ দেখে মনোনয়ন দেওয়া হবে

প্রতিবেদক:
আগামী সংসদ নির্বাচনে ব্যক্তি ইমেজ মূল্যায়ন করে মনোনয়ন দেবে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। কারো তদবিরে কাউকে মনোনয়ন দেওয়া হবে না বলে হুশিয়ার করেছেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। গতকাল সোমবার তেজগাঁওয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে তার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে অনির্ধারিত আলোচনায় তিনি এ হুশিয়ারি দেন। মন্ত্রিসভার কয়েক জন সদস্যের সঙ্গে কথা বলে এ তথ্য জানা গেছে। সূত্র জানায়, প্রধানমন্ত্রী জোটের শরিকদের সঙ্গে আওয়ামী লীগের আসন ভাগাভাগির প্রসঙ্গটিও তোলেন। শরিকদের আসন চাওয়া প্রসঙ্গে শেখ হাসিনা বলেন, জাতীয় পার্টিসহ জোটের সব দল ২৮০ আসন চায়। এটা কি সম্ভব?

আলোচনায় অংশ নেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোহাম্মদ নাসিম, শিল্পমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমির হোসেন আমু, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি ও সমাজকল্যাণমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন। তবে জোটের শরিকদের সঙ্গে আসন ভাগাভাগির অনানুষ্ঠানিক এ আলোচনায় আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের কোনো কথা বলেননি।

শেখ হাসিনা বলেন, নির্বাচনে জয়ের ক্ষেত্রে প্রার্থীর ইমেজ ৭০ শতাংশ আর দলীয় ইমেজ মাত্র ৩০ শতাংশ। সুতরাং কারো টাকা কিংবা মুখ দেখে মনোনয়ন দেওয়ার সুযোগ নেই। যারা জেতার ক্ষমতা রাখেন, শুধু তারাই মনোনয়ন পাবেন। নৌকা প্রতীক পেয়েই পাস করে যাবেন এমন চিন্তা বাদ দিতে নেতাদের আহ্বান জানান তিনি।

সংসদের বাইরে থাকা দল বিএনপি নির্বাচনে আসবে এমন হিসাব মাথায় নিয়েই আওয়ামী লীগ সভাপতি মন্ত্রীদের উদ্দেশে দিকনির্দেশনা দেন বলে সূত্র জানায়।

আগামী নির্বাচন চ্যালেঞ্জেরÑ উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, দেশব্যাপী প্রার্থী বাছাইয়ে রিপোর্ট নেওয়া হচ্ছে। সঠিক রিপোর্টের ভিত্তিতে সঠিক ব্যক্তিকে মনোনয়ন দেওয়া হবে, যেন উনি জিতে আসতে পারেন।

Comments

comments