ব্রেকিং নিউজ

আসামে উৎকণ্ঠায় দেড় কোটি বাঙালি, আজ প্রকাশ হচ্ছে নাগরিক তালিকা


আন্তর্জাতিক ডেস্ক : 
ভারতের আসামে আজ সোমবার প্রকাশ হতে যাচ্ছে সেখানকার জাতীয় নাগরিক তালিকা (এনআরসি)। আপাতত খসড়া তালিকা প্রকাশ করা হবে। পরে তা আরও যাচাই-বাছাই করে চূড়ান্ত করা হবে। জানা গেছে, এ তালিকায় ৭০ শতাংশ বাঙালির নাম বাদ পড়েছে। গতকাল এনডিটিভি জানিয়েছে, এ নিয়ে উৎকণ্ঠায় রয়েছে প্রায় দেড় কোটি বাঙালি।
ভারতে অনেক দিন ধরে এ নিয়ে তুমুল বিতর্ক চলছে। মোদি সরকার আসার পর থেকে অবৈধ বাঙালিদের চিহ্নিত করার জন্য নাগরিকদের তালিকা করছে। যদিও ওই রাজ্যে বহু বছর থেকেই এসব নাগরিক বাস করে আসছেন। এদিকে এ নিয়ে ব্যাপক নিরাপত্তাব্যবস্থা গ্রহণ করেছে আসাম প্রশাসন। রাজ্য পুলিশের পাশাপাশি ১০০ কোম্পানি (১০ হাজার) আধা সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। শুধু আসামই নয়, প্রতিবেশী পশ্চিমবঙ্গ, মেঘালয়, নাগাল্যান্ড ও অরুণাচল প্রদেশও তাদের সীমান্তে জারি করেছে কড়া নজরদারি। একমাত্র উপলক্ষ এনআরসির চূড়ান্ত খসড়া প্রকাশ।
 
এনআরসি সূত্র জানিয়েছে, প্রতিটি এনআরসি সেবাকেন্দ্রের মাধ্যমে তালিকায় নাম অন্তর্ভুক্ত হয়েছে কিনা, তা জানা যাবে। পাশাপাশি অনলাইনেও দেখা যাবে। এ ছাড়া মোবাইল ফোনে এসএমএসের মাধ্যমেও জানা যাবে তালিকায় নাম অন্তর্ভুক্ত হয়েছে কিনা। অবশ্য নাম না থাকলেও কারো বিরুদ্ধে এখনই ব্যবস্থা নেওয়া যাবে নাÑ আসাম সরকারকে এমনই নির্দেশ দিয়েছে ভারত সরকার। আসামের অর্থমন্ত্রী হীমন্ত বিশ্বশর্মা সাংবাদিকদের বলেন, ‘অযথা উদ্বেগের কিছু নেই। কারো বিরুদ্ধেই ব্যবস্থা নেবে না সরকার।’ তবে
বিজেপি পরিচালিত রাজ্য সরকারের ওপর ভরসা নেই কংগ্রেসের। রাজ্যের বিরোধী দলনেতা দেবব্রত শইকিয়া নাম নথিভুক্ত করা নিয়ে দলবাজির অভিযোগ তুলেছেন। কংগ্রেস এনআরসি তালিকা নিয়ে জনগণের বিভ্রান্তি দূর করতে প্রতিটি জেলাতেই সেবাকেন্দ্র খুলছে।
দেবব্রত জানিয়েছেন, এসব সেবাকেন্দ্রে বৈধ নাগরিকদের সহায়তা করা হবে। নাম না থাকলে আগামী ৭ আগস্টের মধ্যে যে কেউ-ই আবেদন করতে পারবেন। কিন্তু সেই আবেদন করতে হবে, তা নিয়ে ধোঁয়াশা রয়েছে বলে জানিয়েছেন আসাম রাজ্য নাগরিক অধিকার সুরক্ষা সমন্বয় সমিতির প্রধান তপোধীর ভট্টাচার্য।
বাংলাদেশিদের ঠেকানোর ডাক নাগাল্যান্ডের নেতার ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য নাগাল্যান্ডের বিরোধী নেতা টিআর জেলিয়াং তার রাজ্যে ‘অবৈধ বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারীদের ঢল রোখার জন্য সবাইকে সতর্ক হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। রাজ্যের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ও বর্তমানে বিধানসভার বিরোধী নেতা মি জেলিয়াং গত শনিবার বলেছেন, ‘নাগাল্যান্ডের সব রাজনৈতিক দল, এনজিও, আদিবাসী হোহো, ছাত্র সংগঠন, গ্রাম কাউন্সিল ও প্রত্যেক রাজ্যবাসীকে এই বাংলাদেশিদের বিরুদ্ধে একজোট হতে হবে। এমনকি তিনি এই অনুপ্রবেশ রোখার জন্য সরকারের কাছে অর্ডিন্যান্স আনারও দাবি জানিয়েছেন।

Comments

comments