রাঙ্গামাটিতে যৌথ বাহিনী সাঁড়াশি অভিযান, তিন পার্বত্য জেলায় ৪৮ ঘণ্টার হরতাল

রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি:

রাঙ্গামাটির নানিয়ারচর উপজেলা চেয়ারম্যান শক্তিমান চাকমা ও গণতান্ত্রিক ইউপিডিএফের পাঁচ নেতাকর্মী হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের গ্রেফতারের জন্য যৌথ বাহিনী বিভিন্ন স্থানে সাঁড়াশি অভিযান চালাচ্ছে। এছাড়া, সজীব হত্যার প্রতিবাদে পার্বত্য তিন জেলায় (রাঙ্গামাটি, খাগড়াছড়ি, বান্দারবান) আগামী ৭ ও ৮ মে ৪৮ ঘণ্টার হরতালের ডাক দিয়েছে বাঙালি ছাত্র পরিষদ ও পার্বত্য নাগরিক পরিষদ।
 
আজ শনিবার নানিয়ারচরের একমাত্র সড়ক পথ রাঙ্গামাটি-মহালছড়ি-খাগড়াছড়ি সড়কে ভারি যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। নানিয়ারচরে সেনা ও পুলিশের টহল বাড়ানো হয়েছে। দোকানপাট খোলা থাকলেও মানুষ প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের হচ্ছে না।
 
এদিকে নানিয়ারচরের ঘটনাস্থল পরিদর্শনে চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি এস,এম মনিরুজ্জামানসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা আজ উপজেলার বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের বলেন, পাহাড়ের শান্ত পরিবেশকে যারা অশান্ত করতে চান তারাই এই হত্যাকাণ্ড সংঘটিত করেছে। যে কোন মূল্যেই আমরা সন্ত্রাসীদের চিহ্নিত করবো। ইতিমধ্যে আমাদের তদন্ত কার্যক্রম অনেক দূর এগিয়েছে। এদের গ্রেফতার পূর্বক কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।
 
এদিকে নানিয়ারচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল লতিফ জানিয়েছেন, বর্তমানে নানিয়ারচরের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। বিভিন্ন স্থানে অতিরিক্ত পুলিশ ও সেনাবাহিনী টহল দিচ্ছে। তিনি জানান, উপজেলা চেয়ারম্যান ও পাঁচজনের হত্যাকাণ্ডের মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।
 
অন্যদিকে, খাগড়াছড়ি জেলার মহালছড়ি উপজেলার মাইসছড়ি নামক এলাকায় মাটিরাঙা উপজেলার তিন বাঙালি ব্যবসায়ীকে অবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তি ও রাঙ্গামাটির নানিয়ারচর উপজেলায় বাঙালি গাড়ি চালক সজিব হাওলাদারের হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার ও বিচারের দাবী করেছে পার্বত্য বাঙালি ছাত্র পরিষদ ও পার্বত্য নাগরিক পরিষদ। তারা পার্বত্য অঞ্চল থেকে সশস্ত্র সন্ত্রাসী সংগঠন ‘ইউপিডিএফ, জেএসএস'-কে নিষিদ্ধের দাবীও জানিয়েছে। এজন্য সংগঠন দুটি আগামীকাল রবিবার ৩ পার্বত্য জেলায় (রাঙ্গামাটি, খাগড়াছড়ি, বান্দারবান) কালো পতাকা মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ এবং আগামী ৭ ও ৮ মে ৪৮ ঘণ্টার পূর্ণ দিবস হরতালের ডাক দিয়েছে।
 
উল্লেখ্য, গতকাল শুক্রবার দুপুরে রাঙ্গামাটির নানিয়ারচরের বেতছড়ির কেংক্রাছড়ি নামক স্থানে দুর্বৃত্তদের গুলিতে ইউপিডিএফ-গণতান্ত্রিক দলের আহ্বায়ক তপন জ্যোতি চাকমা ওরফে বর্মাসহ পাঁচজন নিহত ও ৮ জন আহত হন। নিহতরা সকলেই গত বৃহস্পতিবার দুর্বৃত্তের গুলিতে নিহত নানিয়ারচর উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাড. শক্তিমান চাকমার দাহক্রিয়া অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাচ্ছিলেন।

Comments

comments