খালেদা জিয়াকে নির্জন কারাবাসে রাখা হয়েছে : মওদুদ


প্রতিবেদক :
বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে নির্জন কারাবাসে রাখা হয়েছে দাবি করেছেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। মিথ্যা মামলায় 
পাঁচ বছরের সাজা বিএনপির জন্য টার্নিং পয়েন্ট বলেও মন্তব্য করেছেন দলটির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য ।
আজ শনিবার দুপুরে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি ভবনের শহীদ শফিউর রহমান মিলনায়তনে ‘বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে অন্যায় ও বেআইনিভাবে সাজা প্রদান’ প্রসঙ্গে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপি সমর্থিত আইনজীবীদের সংগঠন জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেছিল।
সংবাদ সম্মেলনে মওদুদ আহমদ বলেন, ‘মিথ্যা মামলায় খালেদা জিয়াকে সাজা দেওয়া হয়েছে। এটাই হবে আমাদের টার্নিং পয়েন্ট। এর প্রতিক্রিয়া ব্যাপক ও গভীর হবে।’
খালেদা জিয়াকে নির্জন কারাবাসে রাখা হয়েছে দাবি করে দলটির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য বলেন, সেখানে স্বাভাবিক পরিস্থিতি বিরাজ করছে না। একটি পরিত্যক্ত ভবনে তাকে রাখা হয়েছে। সেখানে কোনো মানুষ নেই,অন্য আসামিও নেই। যেভাবে ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্তদের নির্জন কারাবাসে রাখা হয়, সেভাবেই তাকে রাখা হয়েছে।’
তিনি বলেন, ‘তিনবারের একজন প্রধানমন্ত্রীকে ডিভিশন না দিয়ে এভাবে কারাগারে রাখার বিষয়টি মানবাধিকার লঙ্ঘন ও আইন পরিপন্থী কাজ।’
এ সময় যত দ্রুত সম্ভব খালেদা জিয়াকে নির্জন কারাবাস থেকে স্বাভাবিক কারাগারে রাখা এবং সেখানে তাকে সব সুযোগ-সুবিধা প্রদান করতে সরকারের কাছে দাবি জানান মওদুদ আহমদ।
খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে সংগ্রাম অব্যাহত রাখা হবে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আগামী নির্বাচনে ব্যালটের মাধ্যমে জনগণ এই মিথ্যা মামলার জবাব দেবে।’
এ সময় সংবাদ সম্মেলনে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সুপ্রিম কোর্ট শাখার সভাপতি ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন, ফোরামের সম্পাদক ও বিএনপির স্থায়ী কমিটির যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার এএম মাহবুব উদ্দিন খোকন, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই রায় চৌধুরী, ব্যারিস্টার বদরুদ্দোজা বাদলসহ প্রমুখ নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

Comments

comments