ভিআইপিদের জন্য আলাদা লেনের প্রস্তাব অসাংবিধানিক- টিআইবি

প্রতিবেদক : 
আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, জরুরি সেবার যানবাহন ও ভিআইপিদের চলাচলে রাজধানীতে আলাদা লেন করার জন্য সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের কাছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের প্রস্তাবকে অসাংবিধানিক ও বৈষম্যমূলক আখ্যায়িত করে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)। একইসঙ্গে এ ধরনের প্রস্তাব প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছে দুর্নীতিবিরোধী সংগঠনটি।
 
গতকাল মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে টিআইবি’র নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের এই প্রস্তাব সংবিধানের সুস্পষ্ট লঙ্ঘন, বৈষম্যমূলক ও ক্ষমতার চূড়ান্ত অপব্যবহারের শামিল। এই প্রস্তাব সংবিধানে বর্ণিত-সুযোগের সমতা, আইনের দৃষ্টিতে সমতা এবং ধর্ম, গোষ্ঠী প্রভৃতি কারণে কোন নাগরিকের প্রতি রাষ্ট্রের বৈষম্য প্রদর্শন না করার মহান নীতিসমূহের লঙ্ঘন। টিআইবি মনে করে, আলাদা লেন করে ভিআইপি ও আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীসহ কোন বিশেষ মহলকে অসাংবিধানিক ও অনৈতিক সুবিধা প্রদানের উদ্যোগ গণতান্ত্রিক চর্চার জন্য আত্মঘাতীমূলক। টিআইবি আশা করে, সরকার এ ধরনের অনিয়মকে কোনভাবেই উত্সাহিত করবে না।
 
ড. জামান বলেন, প্রস্তাবটি উত্থাপন ও সমর্থনে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের যুক্তি- ভিআইপিরা ডান দিক দিয়ে যান, উল্টো দিক দিয়ে যান, নানা রকম ঝামেলা হয়। যা সম্পূর্ণ অসমর্থনযোগ্য। কারণ পরিচয় কিংবা অবস্থান নির্বিশেষে সবাই আইন মেনে চলতে বাধ্য। যেকোন প্রকার অন্যায্য ও আইনবহির্ভূত আচরণের কারণে অসাংবিধানিক ও বৈষম্যমূলক নিয়ম চালু করা যুক্তিযুক্ত হতে পারে না।
 
উল্লেখ্য, গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ অনুযায়ী গত ৫ ফেব্রুয়ারি মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সভা শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সাংবাদিকদের জানান, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, জরুরি সেবার যানবাহন ও ভিআইপিদের চলাচলে রাজধানীতে আলাদা লেন করার জন্য সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের কাছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ প্রস্তাব করেছে। ঢাকা পরিবহন সমন্বয় কর্তৃপক্ষ-ডিটিসিএ এর নির্বাহী পরিচালক সৈয়দ আহমেদও প্রস্তাব পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

Comments

comments