ব্রেকিং নিউজ

মেক্সিকোয় ভূমিকম্পে নিহত দেড় শতাধিক, ডোমেনিকান প্রধানমন্ত্রীর বাড়ি বিধ্বস্হ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

মেক্সিকোয় গতরাতে ভয়াবহ ভূমিকম্পে মৃতের সংখ্যা ১৪০ ছাড়িয়েছে। সাত দশমিক ১ মাত্রার এই ভূমিকম্পে দেশটির মোরেলাস ও পুয়েবলা প্রদেশ দুটিতে সবচেয়ে বেশি ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া গেছে।

ইউএস জিওলজিক্যাল সার্ভে বলছে, এই ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল ছিল রাজধানী মেক্সিকো সিটি থেকে ১২০ কিলোমিটার দূরের পুয়েবলা রাজ্যের আতেনসিঙ্গোতে। স্থানীয় সময় বেলা একটা ১৪ মিনিটে এই ভূমিকম্প আঘাত হানে।

বিবিসির খবরে বলা হয়, এ পর্যন্ত ১৪০ জনেরও বেশি মানুষ নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। মেক্সিকো সিটির দক্ষিণে অবস্থিত মোরেলাস প্রদেশে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি ৫৪ জনের মৃত্যু সংবাদ নিশ্চিত করেছে সেখানকার গভর্নর। এ ছাড়া দক্ষিণ-পূর্বের শহর পুয়েবলাতে ও পশ্চিমের মেক্সিকো প্রদেশে অনেকেই হতাহত হয়েছেন।

ভূমিকম্পের পর পর কাজ শুরু করেন উদ্ধারকর্মীরা। তবে যোগাযোগ ব্যবস্থা প্রায় অচল হয়ে পড়ায় উদ্ধারকাজে বিঘ্ন ঘটছে বলে জানিয়েছে সিএনএন। বিদ্যুৎ ও টেলিফোন সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়েছে। ৪৪টি স্থানে উদ্ধারকাজ চলছে বলে জানিয়েছেন মেক্সিকো সিটির মেয়র মিগুয়েল অ্যাঙ্গেল টেলেভিসা।

মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট এনরিক পেনা নিয়েতো এই বিপর্যয়ে দেশবাসীকে শান্ত থাকতে অনুরোধ জানিয়েছেন।

৩২ বছর আগে ঠিক এ দিনেই ভয়াবহ ভূমিকম্প আঘাত হেনেছিল মেক্সিকোতে। ওই ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা হাজার ছাড়িয়েছিল। ভূমিকম্পনপ্রবণ দেশটির দক্ষিণে চলতি মাসের শুরুতেই আট দশমিক ১ মাত্রার ভূমিকম্পে অন্তত ৯০ জন প্রাণ হারান।

হারিকেন মারিয়ার আঘাতে ক্যারিবীয় দ্বীপ ডোমেনিকা বিধ্বস্ত হয়ে গেছে। উড়ে গেছে দেশটির প্রধানমন্ত্রীর বাড়ির ছাদ। প্রধানমন্ত্রী রুসভেল্ট স্কেরি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে খোদ এ কথা জানিয়েছেন। তিনি তাঁর সরকারি বাসভবনে আশ্রয় নিয়েছেন। সেই সঙ্গে দরিদ্র দ্বীপপুঞ্জবাসীর জন্য তাঁর শঙ্কার কথাও জানিয়েছেন।

ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জ হারিকেন ইরমার ক্ষয়ক্ষতি কাটিয়ে না ওঠার আগেই আবার আঘাত হানল হারিকেন মারিয়া। সোমবার রাতে ঘূর্ণিঝড় মারিয়ার কারণে ক্যারিবীয় দ্বীপ ডোমেনিকায় ভূমিধস হয়। এর আগে আকস্মিকভাবে ঝড়টি ক্যাটাগরি পাঁচে রূপ নেয়। ন্যাশনাল হারিকেন সেন্টার জানিয়েছে, ডোমেনিকায় আঘাতের পর ঝড়টির তীব্রতা কমে যায়। ক্যাটাগরি চারে তা রূপ নেয়।

এদিকে ঝড়ের সঙ্গে সঙ্গে উদ্বেগ দৃশ্যমান হয় প্রধানমন্ত্রীর ফেসবুক অ্যাকাউন্টে। ‘নির্মম ঝোড়ো হাওয়া! ঈশ্বরের কৃপাই আমাদের বাঁচাতে পারবে। আমার বাড়ির ছাদ উড়ে গেছে।’

Comments

comments