আমেরিকার বিরুদ্ধে কঠোর হচ্ছে পাকিস্তান!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

পাকিস্তানের বিরুদ্ধে যদি আমেরিকা কোনো নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে কিংবা ঘনিষ্ঠ মিত্রদেশের মর্যাদা কমিয়ে দেয় তাহলে ওয়াশিংটনের বিরুদ্ধে কঠিন ‘কূটনৈতিক নীতি’ নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইসলামাবাদ। এ প্রেক্ষাপটে পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় সরকার ‘কঠোর কূটনৈতিক নীতি’র ক্ষেত্রে তিনটি বিষয়ে প্রস্তুতি নিয়েছে।

সরকারি সূত্রের বরাত দিয়ে পাকিস্তানের ইংরেজি দৈনিক ‘এক্সপ্রেস ট্রিবিউন’ জানিয়েছে, ইসলামাবাদ যে তিনটি অপশন নিয়ে ভাবছে তাহলো- পর্যায়ক্রমে আমেরিকার সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক সীমিত করা, সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে দ্বিপক্ষীয় সহযোগিতা কমানো এবং আফগানিস্তান বিষয়ে আমেরিকার সঙ্গে সহযোগিতা বন্ধ করা।

এর মধ্যে আফগানিস্তান বিষয়ে অসহযোগিতা ইস্যুতে পাকিস্তানের স্থল পথে ন্যাটো সেনাদের জন্য রসদ সরবরাহের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হতে পারে। পাকিস্তান সম্পর্কে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কূটনৈতিক নীতির আলোকে জাতীয় নিরাপত্তা কমিটির অনুমোদন নিয়ে এসব কঠোর নীতি গ্রহণ করা হবে। বিষয়টি আঁচ করে এরইমধ্যে পাকিস্তানে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত ডভিড হ্যালে পাকিস্তানের বিভিন্ন কর্মকর্তার সঙ্গে বৈঠকে করেছেন।

সম্প্রতি, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প আফগানিস্তান বিষয়ক নতুন নীতি ঘোষণা করেছেন এবং সে সময় তিনি পাকিস্তানকে সন্ত্রাসবাদে মদদ দেয়ার জন্য অভিযুক্ত করেন। এছাড়া, পাকিস্তান সন্ত্রাসীদের জন্য অভয়ারণ্য হয়ে উঠেছে বলেও ট্রাম্প মন্তব্য করেন।

Comments

comments