ব্রেকিং নিউজ

গয়েশ্বরের বাড়িতে পুলিশের অভিযান


প্রতিবেদক:

বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের বাসায় পুলিশি হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল দুপুর দেড়টা থেকে বিকাল চারটা পর্যন্ত কেরানীগঞ্জ থানার ওসি তদন্তের নেতৃত্বে চার গাড়ি পুলিশ গিয়ে এ হামলা চালায় বলে অভিযোগ করেন উপস্থিত লোকজন।

এ সময় আসন্ন দুর্গাপূজা উপলক্ষে গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের পূত্রবধূ নিপুণ রায়ের নেতৃত্বে পূজা কমিটির মিটিং চলছিল বাসায়। এ সময় পুলিশ গিয়ে অতর্কিত অভিযান চালায় এবং পরে প্রায় আড়াই ঘণ্টা বাড়ির ভিতরে সবাইকে অবরুদ্ধ করে রাখে। গতকাল সকালে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক প্রেস ব্রিফিংয়ে গয়েশ্বর চন্দ্র রায় এ অভিযোগ করেন। এ ব্যাপারে তিনি  জানান, বাড়ির কাচের জানালা-দরজা ভাঙচুর করার পর বাড়ির আঙ্গিনা থেকে নেতা-কর্মীদের চারটি মোটরসাইকেল পুলিশ ভ্যানে উঠিয়ে নিয়ে যায়। তিনি বলেন, শুধু তাই নয়, আমার পুত্রবধূ নিপুণ রায়সহ পূজা কমিটির সভাস্থলে আসা ব্যক্তিদের দীর্ঘক্ষণ অবরুদ্ধ করে রাখে পুলিশ। অবস্থা দেখে মনে হয়, দেশে আইনের শাসনের ছিটেফোঁটাও আর অবশিষ্ট নেই। গত ১২ সেপ্টেম্বর গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের বাড়িতে পূজা উদযাপন কমিটির প্রস্তুতি সভা ও দুস্থদের মধ্যে বস্ত্র বিতরণ কর্মসূচিতেও পুলিশি হামলা হয়। এ বিষয়ে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুল ইসলাম বলেন, গতকাল দুপুরে বিএনপি নেতা গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের বাসার সামনের রাস্তায় বেশ কিছু মোটরসাইকেল রেখে চলাচলে বিঘ্ন সৃষ্টি করা হয়। পরে সেখানে অভিযান চালিয়ে লাইসেন্সবিহীন চারটি মোটরসাইকেল জব্দ করা হয়। তার বাসায় হামলা বা পরিবারের সদস্যদের অবরুদ্ধ করে রাখার মতো কোনো ঘটনা ঘটেনি। ঢাকা জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) শাহ মিজান শাফিউর রহমান জানান, বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

Comments

comments