ব্রেকিং নিউজ

পানির নিচে লাইভ কনসার্ট

Dance-1018-thebdexpress

পানির নিচে গ্লাসের তৈরি ট্যাংকের মধ্যে মঞ্চ বানিয়ে গান গাইছেন শিল্পীরা। দশ বছর অক্লান্ত পরিশ্রমের পর ব্যতিক্রমধর্মী এই ব্যান্ডদল গড়েছেন লাইলা স্কোভমান্দ নামের নেদারল্যান্ডের এক শিল্পী।

‘নতুন কিছু করো, একটা নতুন কিছু করো।’ পোষ মানা এ প্রাণ বাঙালি সন্তান দ্বিজেন্দ্রলাল রায় তগাদা দিলেও নতুন কিছু করা সত্যিই দুরূহ কাজ। তবে নতুন করে কিছু করাটা মোটেও দুরূহ কিছু নয়। এই নতুন করে করার তাগিদ থেকেই বিশ্বে এ প্রথম পানির নিচে ব্যান্ডের যন্ত্রপাতি বসিয়ে কার্যক্রম শুরু করতে যাচ্ছে একটি ব্যান্ড দল। এখন থেকে পানির নিচের তৈরি করা মঞ্চ থেকে গান গাইবেন এ ব্যান্ডের শিল্পীরা।

পানির নিচে বসানো হয়েছে ড্রাম, গিটার, বেহালাকে থেকে শুরু করে সংগীতের সব সরঞ্জাম। নেই নিঃশ্বাস নেওয়ার কোনো ব্যবস্থা।
প্রায় দশ বছর আগে পানির নিচে ব্যান্ড করার আইডিয়া আসে শিল্পী লাইলার মাথায়। তারপর থেকে কাজ শুরু করেন তিনি। 
পানির নিচে ব্যান্ড দল প্রতিস্থাপনে লাইলার দলে পাঁচজন কাজ করেছেন। তারা সব সরঞ্জাম নিজেদের মতো করে তৈরি করেন। গ্লাসের তৈরি ট্যাংকের মধ্যে মঞ্চ তৈরি করা হয়েছে। গান গাওয়ার সময় শ্বাস-প্রশ্বাস নেওয়ার কোনো সুযোগ নেই। তবে বিরতির সময়ই শিল্পীরা শ্বাস-প্রশ্বাস নিতে পারবেন।

লাইলা জানান, গান গাওয়ার সময় পানির নিচ থেকে কোনো বুদবুদ তৈরি হবে না। পানির নিচে একজন সসপ্যানের মতো ড্রাম বাজায়। আরেকজন সুরেলা ভায়োলিন বাজায়। যন্ত্রগুলো বিশেষভাবে তৈরি। অ্যান্ডে ক্যাভাটোরটা যন্ত্রগুলো তৈরি করেছেন। তিনি নিজেও এ ব্যান্ডের একজন সদস্য।

পানির নিচে ব্যান্ড করতে গিয়ে প্রথমে শব্দ নিয়ে ঝামেলায় পড়েছেন তারা। কারণ পানির মধ্যে শব্দ চারগুণ বেশি গতিতে চলাচল করে।

এ বিষয়ে ব্যান্ডদলের একজন সদস্য বলেন, বিভিন্ন যন্ত্র তৈরিতে আমাদের অনেক কষ্ট করতে হয়েছে। যন্ত্রগুলো বাজানোর বিভিন্ন পদ্ধতি রপ্ত করাসহ নতুন নতুন কৌশল শিখতে হয়েছে আমাদের।  
ব্যান্ড দলটি এখন মহড়া দিচ্ছে পানির নিচে। আগামী শুক্রকার রোট্টারডমে লাইভ কনসার্ট করবে দলটি।

Comments

comments