ব্রেকিং নিউজ

৩১ মার্চ ১৯৫ পাকিস্তানি যুদ্ধপরাধীর প্রতিকী বিচার

pak-army-thebdexpress

দ্য বিডি এক্সপ্রেস.কম।।

১৯৫ জন পাকিস্তানি সেনা কর্মকর্তার প্রতিকী বিচার অনুষ্ঠিত হবে ৩১ মার্চ। রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে লক্ষ জনতার উপস্থিতিতে এই বিচারের আয়োজন করেছেন ‘আন্তর্জাতিক অপরাধ গণবিচার আন্দোলন’।
রোববার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় স্বাধীনতা হলে সংগঠনটির পক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়।
পাকিস্তানী সেনাদের সংগঠিত গণহত্যা, অগ্নিসংযোগ, লুণ্ঠন, ধর্ষণসহ নৃশংস অত্যাচারের অপরাধের দায়ে চিহ্নিত ১৯৫ সেনা কর্মকর্তার বিচারের দাবি জানিয়েছে সম্প্রতি আত্মপ্রকাশ পাওয়া ‘আন্তর্জাতিক অপরাধ গণবিচার আন্দোলন’ নামের সংগঠন।

 

২০১৫ সালের ১৮ ডিসেম্বর পাকিস্তানি ১৯৫ সেনা কর্মকর্তার প্রতিকী বিচারের লক্ষে আত্মপ্রকাশ ঘটে ‘আন্তর্জাতিক অপরাধ গণবিচার’ নামের এ সংগঠনের। সংগঠনটির নেতারা বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষের সঙ্গে মতবিনিময় করে তাদের পরামর্শ ভিত্তিতে নামের সঙ্গে ‘আন্দোলন’ শব্দটি যুক্ত করেছে। একই সঙ্গে তাদের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্যে আংশিক পরিবর্তন এনেছে। এগুলো উপস্থাপন করতেই এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেছেন বলে জানান সংগঠনের আহ্বায়ক ও নৌ পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান।
তিনি বলেন, এই সংগঠন বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে ১৯৫ সেনা কর্মকর্তার বিচারের জন্য পাকিস্তানের উপর আন্তর্জাতিক চাপ সৃষ্টি, জামায়াতে ইসলামী বাংলাদেশ ও ইসলামী ছাত্র
শিবির নিষিদ্ধসহ মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তির নানা দাবি নিয়ে কাজ করবে। দেশেকে আরও সমৃদ্ধশালী করে স্থায়ী শান্তি ও সুশাসনের সমাজ প্রতিষ্ঠায় ভূমিকা পালন করবে।
এ জন্য তারা ইতোমধ্যে বিভিন্ন কর্মসূচিও হাতে নিয়েছে। এরমধ্যে ১৯৫ সেনা কর্মকর্তার বিচারের দাবিতে এবং পাকিস্তান সরকারের উপর চাপ সৃষ্টি করার লক্ষ্যে ৩১ মার্চ সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে লক্ষ জনতার সামনে ‘আন্তর্জাতিক অপরাধ গণবিচার আন্দোলন’ এর বৈঠক। এতে জনতার আদালতে ১৯৫ সেনার প্রতিকি বিচারকার্য অনুষ্ঠিত হবে।
সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক আবেদ খান, ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইসমত কাদির গামা, শিরিন আখতার এমপি, চলচ্চিত্রকার কাজি হায়াৎ, টিভি উপস্থাপক অঞ্জন রায় প্রমুখ।

Comments

comments