ব্রেকিং নিউজ

ঢাকায় পুলিশের গুলিতে দুই জেএমবির কমান্ডার নিহত

cross1-thebdexpress

দ্য বিডি এক্সপ্রেস.কম।।

রাজধানীর হাজারীবাগে ডিবি পুলিশের সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ জেএমবির কমান্ডার আবদুল্লাহ ও ঢাকা বিভাগের কমান্ডার হিরণ ওরফে কামাল নিহত হয়েছেন।
বুধবার রাত সাড়ে ১০টায় দিকে হাজারীবাগের শিকদার হাসপাতালের পেছনে বেড়িবাঁধ এলাকায় এই ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটে।
এই ঘটনায় আটক হয়েছে তিনজন । দুটি পিস্তল ও একটি মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়। নিহত কামাল গাবতলী ও আশুলিয় পুলিশ হত্যাকা-ের সাথে সরাসরি জড়িত ছিল বলে দাবি করছে পুলিশ । ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ক্যাম্পের ইনচার্জ পরিদর্শক মোজাম্মেল হক এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
পুলিশ জানায়, বুধবার রাতে গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল রাজধানীর হাজারীবাগের বেড়িবাঁধ সংলগ্ন শিকদার মেডিকেল কলেজের পাশে থাকা নতুন রাস্তায় পৌঁছালে দুটি মোটরসাইকেলে করে পালিয়ে যেতে থাকা জেএমবি সদস্যরা পুলিশের উপরে গ্রেনেড নিক্ষেপ ও গুলি বর্ষণ করে। পরে পুলিশের পক্ষ থেকে পাল্টা গুলি চালালে একটি মোটরসাইকেলে থাকা দুই জন জেএমবি সদস্য গুলিবিদ্ধ হয়।
অপর মোটরসাইকেলের সদস্যরা পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থল থেকে দুটি পিস্তল, একটি শুটারগান এবং একটি মোটরসাইকেল আটক করা হয়। এ ঘটনায় তিন পুলিশ সদস্য আহত হয় এবং পুরো অভিযানের অংশ হিসেবে রাজধানীর কামরাঙ্গীরচর এলাকা থেকে তিন জন জেএমবি সদস্যকেও গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানায় পুলিশ।
ডিবি পুলিশের (দক্ষিণ) এডিসি সানোয়ার হোসেন জানান, কিছুদিন আগে মিরপুর থেকে আটক জঙ্গিদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী রাতে কামরাঙ্গীরচর থেকে তিন জঙ্গিকে আটক করেন তারা।
এদিকে ডিবির একটি সূত্র জানিয়েছে, বুধবার কামরাঙ্গীরচর এলাকা থেকে তিন জঙ্গিকে গ্রেফতার করেন তারা। তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে হাজারীবাগে অভিযানে যায় ডিবি। রাত ১২টার দিকে ডিবির দলটি শিকদার মেডিক্যাল কলেজের পাশে নতুন রাস্তায় পৌঁছায়। এ সময় দুটো মোটরসাইকেলে করে কয়েকজন জঙ্গি ডিবির ওপর গ্রেনেড নিক্ষেপ করে ও গুলি ছুড়ে। এ সময় ডিবি সদস্যরাও পাল্টা গুলি চালালে একটি মোটরসাইকেলে থাকা দুজন গুলিবিদ্ধ হয়। আরেকটি মোটরসাইকেলে থাকা জঙ্গিরা পালিয়ে যায়।
পরে গুলিবিদ্ধদের প্রথমে শিকদার হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখান থেকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন। 

Comments

comments