ব্রেকিং নিউজ

সৌদি সামরিক জোটে পাকিস্হানের অনীহা; বাংলাদেশের সমর্থন

soudi allaiance-thebdexpress

দ্য বিডি এক্সপ্রেস.কম

আইএসের বিরুদ্ধে সামরিক জোট গঠনের ঘোষণার শুরুতেই এটি ভাঙনের মুখে পড়েছে।এরই মধ্যে ৩৪টি মুসলিম দেশ নিয়ে গঠিত এই জোটের সাফল্য কামোনা করে বিবৃতি দিয়েছে পশ্চিমাদেশগুলোও।

বাংলাদেশসহ বেশিরভাগ দেশ জোটের ব্যাপারে তাদের সম্মতির কথা জানালেও বেকে বসেছে প্রভাবশালী দেশ পাকিস্তান, মালয়েশিয়া ও ইন্দোনেশিয়া।তারা বলছে, তাদের মত না নিয়েই সৌদি আরব জোটের ঘোষণা দিয়েছে।এ ঘটনায় দেশ তিনটি বিস্ময়ও প্রকাশ করেছে।


এর ফলে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সৌদি আরবের নতুন জোটের ঘোষণা দেয়ার একদিন যেতে না যেতেই এর কার্যক্রম ও সাফল্য প্রশ্ন মুখে পড়লো। পাকিস্তান, ইন্দোনেশিয়া এবং মালয়েশিয়ার কর্মকর্তারা বলছেন, জোটে যোগ দেয়ার ব্যাপারে আনুষ্ঠানিকভাবে তারা মত দেননি।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্র সচিব আইজাজ চৌধুরী বলেছেন, সৌদি সামরিক জোটে নিজেদের অন্তর্ভুক্তির ঘোষণা শুনে তিনি বিস্মিত হয়েছেন। একই সাথে রিয়াদে নিযুক্ত পাকিস্তানি রাষ্ট্রদূতের কাছে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানতে চাওয়া হয়েছে।

বুধবার এক বিবৃতিতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, জোটে পাকিস্তানের ভূমিকা কি হবে, তা ঠিক করার আগে ওই জোটে আদৌ তারা যোগ দেবে কি না সে সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

একই কথা জানিয়েছে ইন্দোনেশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। চুক্তির বিস্তারিত কার্যবিধি পর্যালোচনা করে দেখছে ইন্দোনেশিয় সরকার। ফলে সামরিক জোটে যোগ দেবার বিষয়ে তারা এখনো নিশ্চিত নয়।

এদিকে, মালয়েশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী হিশামউদ্দিন হুসেইন এই জোটকে সমর্থন জানালেও, জোটে কোনরকম সেনা পাঠানোর সম্ভাবনা নাকচ করে দিয়েছেন।

গুরুত্বপূর্ণ সদস্যরাষ্ট্রগুলোর এরকম প্রতিক্রিয়ার পর নতুন সামরিক জোটের কার্যক্রম এবং সাফল্য নিয়ে শুরুতেই প্রশ্ন উঠেছে। তবে এই জোটকে স্বাগত জানিয়েছে রাশিয়া।

মঙ্গলবার ৩৪টি মুসলিম প্রধান দেশ নিয়ে একটি নতুন সামরিক জোট গঠনের ঘোষণা দেয় সৌদি আরব।

বাংলাদেশও এই জোটে যোগ দিয়েছে। তবে, জোটের অধীনে সৈন্য পাঠাতে হবে কিনা, বা সামরিক বিষয়ে কি ধরণের সহযোগিতার প্রশ্ন আসবে, তা নিয়ে এখনো বিস্তারিত জানে না দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। সূত্র: বিবিসি

Comments

comments