সহস্রাধিক নেতাকর্মীসহ বিএনপির পৌর মেয়র আওয়ামী লীগে যোগদান

চট্ট মেয়রচট্টগ্রাম প্রতিনিধিঃ চট্টগ্রামের সাতকানিয়া পৌরসভার মেয়র হাজী মোহাম্মদুর রহমান বিএনপি ছেড়ে আওয়ামী লীগে যোগদান করেছেন। গতকাল রবিবার সন্ধ্যায় নগরীর আন্দরকিল্লাস্থ চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোছলেম উদ্দিন আহমেদ হাতে ফুল দিয়ে তিনি আওয়ামী লীগে যোগ দেন।

চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা বিএনপির যুগ্ম-সম্পাদক ও  সাতকানিয়া পৌরসভার নির্বাচিত মেয়র  বিএনপি ও এলডিপি’র সগস্রাধিক নেতাকর্মীসহ আওয়ামী লীগে যোগ দেন। দক্ষিন চট্টগ্রামের জামায়াত-শিবিরের শক্ত ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত সাতকানিয়া পৌরসভার বিএনপি দলীয় মেয়র হাজী মোহাম্মদুর রহমানের আওয়ামীলীগে যোগদানের ফলে বিএনপি জামাতের শক্তিশালী দূর্গ হাতছাড়া। দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোছলেম উদ্দিন আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। যোগদানকারীদের মধ্যে আরও আছেন সাতকানিয়া পৌরসভার দুই নম্বর ও চার নম্বর ওয়ার্ডের বিএনপিদলীয় কাউন্সিলর জিয়াউর রহমান ও শামসুল হক এবং এলডিপি’র উপজেলা শাখার যুগ্ম সম্পাদক জসিম উদ্দিন। তাদের সঙ্গে অনেক নেতাকর্মীও যোগদান অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন।

রোববার (১৬ আগস্ট) সন্ধ্যায় দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে নৌ পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খানের হাতে ফুলের তোড়া দিয়ে দলে যোগ দেন পৌর মেয়রসহ বিএনপি ও এলডিপির নেতাকর্মীরা।

এসময় দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোছলেম উদ্দিন আহমেদ ও সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, সাতকানিয়ার সাংসদ আবু রেজা মোহাম্মদ নেজামউদ্দিন নদভি এবং চন্দনাইশের সাংসদ নজরুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

নৌ পরিবহন মন্ত্রী যোগদানকারীদের দলে স্বাগত জানিয়ে বলেন, বিএনপি-জামায়াতের নেতাকর্মীরা ইঁদুরের গর্ত থেকে বের হয়ে আসছেন। বিএনপিতে কোন উপায় না দেখে তারা এখন আওয়ামী লীগে যোগ দিচ্ছেন। আরও অনেকেই আওয়ামী লীগে যোগ দেবেন।

এ বিষয়ে যোগাযোগ করলে হাজী মোহাম্মদুর রহমান জানান, ‘আমি বিএনপির রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত ছিলাম।  বঙ্গবন্ধুর আদর্শের প্রতি একাত্মতা পোষণ ও বর্তমান সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের সাথে নিজেকে সম্পৃক্ত করতে আমি বিএনপি ছেড়ে আওয়ামী লীগে যোগদান করেছি। আগামীতে দলের সকল স্তরের নেতাকর্মীদের সাথে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করবো এবং সাতকানিয়াকে আওয়ামী লীগের দূর্গে পরিণত  করবো।’

Comments

comments