ব্রেকিং নিউজ

সিটি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা : ২৮ এপ্রিল ভোটগ্রহণ

image_11723প্রতিবেদকঃ আগামী ২৮ এপ্রিল ভোটগ্রহণের তারিখ নির্ধারণ করে ঢাকা (উত্তর ও দক্ষিণ) এবং চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।
কমিশন ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী এই তিন সিটির মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ২৯ মার্চ রোববার, দাখলকৃত মনোনয়নপত্রগুলো যাচাই-বাছাই ১ ও ২ এপ্রিল বুধ ও বৃহস্পতিবার এবং মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন ৯ এপ্রিল বৃহস্পতিবার।
প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী রকিবউদ্দীন আহমদ আজ ইসি সচিবালয়ের সম্মেলন কক্ষে এই তিন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন।
এর আগে কমিশনের বৈঠকে নির্বাচনের এই তারিখ চূড়ান্ত হয়। সিইসি’র সভাপতিত্বে এ বৈঠকে নির্বাচন কমিশনার মোহাম্মদ আব্দুল মোবারক, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) আবু হাফিজ, মো. শাহনেওয়াজ ও ইসি সচিবালয়ের সচিব মো. সিরাজুল ইসলামসহ কমিশন সচিবালয়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
সর্বশেষ ২০০২ সালে ঢাকা সিটি কর্পোরেশনে ভোটগ্রহণ হয়। এরপর ২০১১ সালের ৩০ নভেম্বরে ঢাকা সিটিকে দুই ভাগ করে উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন গঠন করা হয়।
এ ছাড়া চট্টগ্রামে ২০১০ সালের ১৭ জুন সর্বশেষ ভোটগ্রহণ হয়। সে অনুযায়ী আগামী জুলাইয়ের মধ্যে চট্টগ্রাম সিটির নির্বাচন করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে।
এ নির্বাচনে ঢাকা দক্ষিণে ইসির উপ-সচিব মিহির সারওয়ার মোর্শেদ এবং উত্তরে মো. শাহ আলমকে রিটার্নিং কর্মকর্তার দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। চট্টগ্রামের রিটার্নিং কর্মকর্তার দায়িত্ব পেয়েছেন আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা আব্দুল বাতেন।
ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের ৩৬টি ওয়ার্ডে ভোটার রয়েছেন ২৩ লাখ ৯৮ হাজার ৪৩২ জন। আর দক্ষিণের ৫৭টি ওয়ার্ডে ১৮ লাখ ৯০ হাজার ৯৫১ জন ভোটার।
মিহির সারওয়ার মোর্শেদ জানান, দুই সিটি মিলিয়ে ৪২ লাখ ৮৯ হাজার ৩৮৩ ভোটারের বিপরীতে এবার অন্তত ২ হাজার ১০০টি ভোটকেন্দ্র প্রয়োজন হবে।
আর চট্টগ্রামের ১৮ লাখ ২২ হাজার ৮৯২ জন ভোটারের জন্য এক হাজারেরও বেশি ভোটকেন্দ্র প্রয়োজন হবে বলে আব্দুল বাতেন জানিয়েছেন।

Comments

comments