ব্রেকিং নিউজ

সমতাভিত্তিক বিশ্ব গড়ে তোলার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

image_105575_020141108094555দ্য বিডি এক্সপ্রেসঃ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সকলে মিলে নারীর মানবাধিকার রক্ষা, ন্যায্য অধিকার প্রাপ্তি, ক্ষমতায়ন ও মর্যাদা নিশ্চিতকল্পে একটি সমতাভিত্তিক বিশ্ব গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়েছেন।
তিনি বলেন, ‘আসুন, আজ আন্তর্জাতিক নারী দিবসে সকলে মিলে নারীর মানবাধিকার রক্ষা, ন্যায্য অধিকার প্রাপ্তি, ক্ষমতায়ন ও মর্যাদা নিশ্চিতকল্পে একটি সমতাভিত্তিক বিশ্ব গড়ে তোলার অঙ্গীকার করি। নারী-পুরুষের সম্মিলিত প্রয়াসে সমাজ, দেশ ও বিশ্বকে আরো এগিয়ে নেই।’
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে গতকাল দেয়া এক বাণীতে এ আহ্বান জানান।
বাণীতে তিনি বলেন, বর্তমান সরকার অতীতের যে কোনো সময়ের তুলনায় নারীর অবস্থান আশাতীতভাবে পরিবর্তন করতে সক্ষম হয়েছে। এ সংক্রান্ত ‘সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা’ অর্জনে সরকার ঈর্ষণীয় সাফল্য অর্জন করেছে।
জাতিসংঘসহ বিভিন্ন দেশ ও আন্তর্জাতিক সংস্থা নারী উন্নয়নে তার সরকারের ভূয়সী প্রশংসা করছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আমাদের সরকারের সময়োপযোগী ও বলিষ্ঠ পদক্ষেপের ফলে রাজনীতি, বিচার বিভাগ, প্রশাসন, শিক্ষা, চিকিৎসা, সশস্ত্র বাহিনী ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীসহ সর্বক্ষেত্রে নারীর সফল পদচারণা দৃশ্যমান হচ্ছে।’
প্রধানমন্ত্রী বাণীতে বলেন, সরকার নারীর ক্ষমতায়ন, জেন্ডার সমতা ও দারিদ্র্যবিমোচনকে জাতীয় উন্নয়ন পরিকল্পনায় অগ্রভাগে স্থান দিয়েছে। জাতীয় নারী উন্নয়ন নীতি ২০১১ প্রণয়ন এবং নারীর প্রতি সহিংসতা রোধ ও নারীর ক্ষমতায়নে বিষয়ভিত্তিক আইন ও নীতিমালা প্রণয়ন করা হয়েছে। নারীর সামাজিক নিরাপত্তা বলয় সুসংহত করতে মাতৃত্বকালীন ভাতা, ল্যাকটেটিং মাদার ভাতা, বয়স্ক ভাতা, বিধবা-তালাকপ্রাপ্ত ও নির্যাতিত নারীদের ভাতা কর্মসূচি, অসচ্ছল প্রতিবন্ধীদের ভাতা চালু হয়েছে।
এছাড়া প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান, ভিজিএফ, ভিজিডি ও জিআর কার্যক্রম সম্প্রসারণের মাধ্যমেও সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হচ্ছে বলেও বাণীতে প্রধানমন্ত্রী উল্লেখ কেেরন।
তিনি বলেন, স্থানীয় সরকার কাঠামোতে প্রত্যক্ষ ভোটে নারীর অংশগ্রহণের সুযোগ নারীর অধিকার প্রতিষ্ঠায় ভূমিকা রাখছে। ২০১৩ সালে প্রকাশিত গ্লোবাল জেন্ডার গ্যাপ অনুযায়ী নারীর রাজনৈতিক ক্ষমতায়নে বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান ৭ম। বাংলাদেশ জেন্ডার গ্যাপ হ্রাসে ২০১৩ সালের ৭৫তম স্থান থেকে ২০১৪ সালে ৬৮তম স্থানে উন্নীত হয়েছে।
দিবসটি উপলক্ষে তিনি বিশ্বের সকল নারীকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানান এবং শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করেন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক নারী জাগরণের অগ্রদূতদের, যাঁদের আত্মত্যাগ ও নিষ্ঠায় নারীর সমঅধিকার এবং মর্যাদা প্রতিষ্ঠার আন্দোলন আজ সর্বব্যাপী হয়েছে।
প্রধানমন্ত্রী আন্তর্জাতিক নারী দিবস-২০১৫ উৎযাপনের সার্বিক সাফল্য কামনা করেন।

Comments

comments