ব্রেকিং নিউজ

জরুরী অবস্হা জারির পরিস্হিতি হয়নিঃ প্রধান মন্ত্রী

image_105575_020141108094555দ্য বিডি এক্সপ্রেসঃ বাংলাদেশের সংসদে চলমান সহিংসতা বন্ধে ‘সেনা-বিহীন জরুরী অবস্থা’ জারির দাবি ওঠার একদিন পর আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তা নাকচ করে দিয়েছেন।

আজ সংসদে প্রধানমন্ত্রীর প্রশ্নোত্তর পর্বে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন দেশে জরুরী অবস্থা জারির মতো কোন পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়নি। প্রচলিত আইনেই নাশকতা দমন সম্ভব।

বাংলাদেশে বিএনপি জোটের অবরোধ কর্মসূচির মধ্যে গত প্রায় এক মাস জুড়ে নানা ধরনের সহিংসতার ঘটনা ঘটছে।

স্থানীয় গণমাধ্যমের তথ্য অনুযায়ী গত ৪ঠা জানুয়ারি থেকে এ পর্যন্ত অন্তত ৫৮ জন নিহত হয়েছেন।

এর মধ্যে অধিকাংশই যানবাহনে পেট্রোল বোমা হামলায় নিহত হয়েছেন।

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ এসব ঘটনার জন্য বিএনপি-জামায়াতকে দায়ী করলেও তারা পাল্টা এসবের জন্য সরকারকেই দায়ী করছে।

এছাড়া আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে কিংবা তাদের সাথে কথিত বন্দুকযুদ্ধেও নিহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

 তবে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন সন্ত্রাস মোকাবেলার জন্য আইন শৃঙ্খলা বাহিনী রয়েছে এবং সহিংসতা দমনে নতুন কোন আইনেরও প্রয়োজন নেই।

সহিংসতা ও নাশকতার জন্য বিএনপি নেতৃত্বাধীন জোটকেই দায়ী করে তিনি অভিযোগ করেন বিএনপি নেত্রী লাশের উপর পা দিয়ে ক্ষমতায় যেতে চান।

মঙ্গলবার সংসদ সদস্য নজিবুল বাশার মাইজভাণ্ডারী এক-দেড় মাসের জন্য সেনা-বিহীন জরুরী অবস্থা জারীর প্রস্তাব দিয়েছিলেন।

বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া গত ৫ই জানুয়ারি লাগাতার অবরোধ কর্মসুচির ঘোষণা দিয়েছিলেন।

পাশাপাশি বিভিন্ন মেয়াদী হরতালও ডাকা হচ্ছে।

Comments

comments